চিকুনগুনিয়া ঠেকাতে রাজধানীবাসীকে সতর্ক করলেন মেয়র চিকুনগুনিয়া ঠেকাতে রাজধানীবাসীকে সতর্ক করলেন মেয়র – CTG Journal

শনিবার, ২৪ অক্টোবর ২০২০, ০২:৪৭ অপরাহ্ন

        English
শিরোনাম :
সীমান্তে স্থলমাইন বিস্ফোরণে রোহিঙ্গা যুবক নিহত রায়হান হত্যাকাণ্ড: আরও এক পুলিশ সদস্য গ্রেফতার অ্যাটর্নি জেনারেল হয়েও বেতন নিতেন না রফিক উল হক আগুনমুখা নদীতে নিখোঁজ ৫ জনের লাশ উদ্ধার শুক্রবার চট্টগ্রামে করোনা আক্রান্ত ৮১ সুশাসন প্রতিষ্ঠায় ব্যারিস্টার রফিক উল হকের অবদান অনস্বীকার্য স্থল নিম্নচাপ দেশের মধ্যাঞ্চলে, আজও হতে পারে ভারী বৃষ্টি ব্যারিস্টার রফিক উল হক আর নেই আকবরশাহ’তে ছুরি চাপাতিসহ ২ যুবক গ্রেফতার ফেনীতে কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগ, গ্রেফতার ১ মানিকছড়ি পূজামন্ডবে দুশতাধিক গরীব দুঃস্থর মাঝে বস্ত্র বিতরণ নিম্নচাপ উপকূল অতিক্রম করেছে, সকালে আবহাওয়ার উন্নতি হতে পারে
চিকুনগুনিয়া ঠেকাতে রাজধানীবাসীকে সতর্ক করলেন মেয়র

চিকুনগুনিয়া ঠেকাতে রাজধানীবাসীকে সতর্ক করলেন মেয়র

সিটিজি জার্নাল নিউজঃ শীত শেষে রাজধানীতে মশার উৎপাত বেড়ে যাওয়ায় নিজের হাতে ফগার মেশিন দিয়ে মশার ওষুধ ছিটিয়ে ‘ক্র্যাশ প্রোগ্রামের’ উদ্বোধন করলেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র সাঈদ খোকন।

আজ বুধবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা অনুষদের ভেতরে এ কর্মসূচির উদ্বোধন করেন মেয়র সাঈদ খোকন। এ সময় তিনি রাজধানীবাসীর উদ্দেশে বলেন, “এবার যাতে চিকুনগুনিয়ার প্রাদুর্ভাব নগরে ছড়িয়ে না পড়ে, সেজন্য আমাদের সম্মানিত নাগরিকদের আগাম সজাগ ও সতর্ক থাকার আহ্বান জানাচ্ছি। আপনাদের বাসার আঙিনায় যদি ঝোপ-ঝাড় থাকে, তাহলে সেগুলো পরিষ্কার রাখবেন। মশার বিস্তার ঘটতে পারে এমন কোথাও যদি পানি জমে থাকে, সেগুলোও পরিষ্কার রাখবেন।”

মেয়র খোকন দাবি করেন, দেশের অন্য সিটি করপোরেশনের তুলনায় তার এলাকায় মশার উৎপাত তেমন ভয়াবহ হয়ে ওঠেনি এখনও। পুরান ঢাকাসহ ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের অধীনে অনেক এলাকায় মশা নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। ধানমন্ডি এলাকায় কিছুটা এবং বনশ্রী, জুরাইন, কামরাঙ্গীচর এলাকায় মশার উপদ্রব রয়েছে।

মশা নিয়ন্ত্রণে রাখতে দক্ষিণ সিটি করপোরেশন কর্তৃপক্ষ ‘সম্ভব সবকিছু’ করবে- এমন প্রতিশ্রুতি দিয়ে মেয়র বলেন, “আমাদের সমস্ত জনবল, সমস্ত ইকুইপমেন্ট এক জায়গায় জড়ো করে এই ক্র্যাশ প্রোগ্রামে এক একটা জোনে সর্বশক্তি দিয়ে কাজ করব। আমাদের স্বাস্থ্য বিভাগ সম্পূর্ণ প্রস্তুত রয়েছে। আমরা বাড়ি বাড়ি গিয়ে পাড়া মহল্লায় গিয়ে ওষুধ ছিটিয়ে আসব।”

কাউন্সিলরদের সঙ্গে স্প্রে ম্যানদের কাজের সমন্বয়হীনতার অভিযোগ নিয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে মেয়র বলেন, “আমাদের এই কার্যক্রমকে মনিটর করার জন্য প্রত্যেক এলাকায় নির্বাচিত কাউন্সিলররা আছেন। তারা নিজেরা উপস্থিত থেকে আমাদের স্প্রে ম্যান, ক্রু দের মনিটর করেন, যাতে কাজ সঠিকভাবে সম্পন্ন হয়। এ ব্যাপারে সমন্বয়ের ঘাটতি নেই, যদি থেকে থাকে তবে আলোচনার মাধ্যমে আমরা তা ঠিক করে নেব।”

এ সময় সেগুনবাগিচা ২০ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ফরিদুর রহমান রতনসহ বিভিন্ন ওয়ার্ডের কাউন্সিলর, বিডি ক্লিনের সেচ্ছাসেবী এবং সিটি করপোরেশনের মশক নিধন কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

একে/এম

Please Share This Post in Your Social Media

Powered by : Oline IT