কোয়ারেন্টিনে এক রোহিঙ্গা পরিবার কোয়ারেন্টিনে এক রোহিঙ্গা পরিবার – CTG Journal

সোমবার, ৩০ মার্চ ২০২০, ১০:৫৪ পূর্বাহ্ন

        English
শিরোনাম :
‘বঙ্গবন্ধু আবাসনে’ ঠাঁই হলো ৩৪ পরিবারের করোনা সংকটে উদ্বিগ্ন জার্মান মন্ত্রীর আত্মহত্যা করোনা মোকাবিলায় প্রধানমন্ত্রীর চার পরামর্শ করোনা প্রতিরোধে সাংগঠনিকভাবে কাজ করছে আ. লীগ দায়িত্ব হস্তান্তর ও যৌথসভায় ডিইউজে’র নেতৃবৃন্দ- গণমাধ্যম কর্মীদের স্বাস্থ্য নিরাপত্তা ও ঝুঁকি ভাতাসহ ৯ দফা দাবি গণমাধ্যমের জন্য জরুরি ভিত্তিতে প্রণোদনা প্যাকেজ দাবি এডিটর্স গিল্ডের খালেদা জিয়ার বাসার সামনে পুলিশি নিরাপত্তা চেয়ে আবেদন দুযোর্গ এড়াতে ‘করোনা’ মোকাবিলায় বাড়ি বাড়ি গিয়ে ত্রাণ বিতরণ করলেন লক্ষ্মীছড়ি ইউএনও ‘করোনা’ মোকাবিলায় দ্রব্য মূল্য নিয়ন্ত্রণে লক্ষ্মীছড়িতে চলছে তৃতীয় দিনের কার্যক্রম ইতালিতে আক্রান্ত ৬ হাজার স্বাস্থ্যকর্মী, মৃত ৫১ চিকিৎসক ভারতে আটকে পড়া বাংলাদেশিদের ফিরিয়ে আনার উদ্যোগ করোনা নিয়ে গুজব ছড়ালে ব্যবস্থা: আইজিপি
কোয়ারেন্টিনে এক রোহিঙ্গা পরিবার

কোয়ারেন্টিনে এক রোহিঙ্গা পরিবার

করোনা প্রতিরোধে ভারত হতে অবৈধভাবে আসা এক রোহিঙ্গা পরিবারকে কোয়ারেন্টিনে নেওয়া হয়েছে। সোমবার (২৩ মার্চ) দুপুরে তাদের টেকনাফের লেদা রোহিঙ্গা শিবির হতে দুই শিশুসহ চারজনের পরিবারটিকে কোয়াররেন্টিনে নেওয়া হয়। তারা এখন লেদা  জাতিসংঘের অভিবাসন সংস্থার (আইওএম) হাসপাতালে রয়েছে।

পরিবারটির সদস্যরা হলেন, মো. ছাদেক (২৫),  সাদেকের স্ত্রী হোসনে আরা (২৩),   ছেলে পারভেজ (৩) ও মেয়ে সাজেদা (১০ মাস)।

স্থানীয় রোহিঙ্গা নেতারা জানিয়েছেন,  সোমবার ভোর ৫টার দিকে খুলনা হয়ে সড়কপথে রোহিঙ্গা ক্যাম্প-২৪ এর ‘ই’ ব্লকে মোস্তাক আহম্মেদ নামক এক ব্যক্তির বাসায় আসে ছাদেকের পরিবারটি। বেলা ১২টার দিকে তাদের আসার খবর জানাজানি হলে পরিবারটিকে ক্যাম্প ইনচার্জ (সিআইসি) অফিসে নিয়ে আসা হয়।

এ বিষয়টি নিশ্চত করে ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনারের প্রতিনিধি, টেকনাফের নয়াপাড়া ও লেদা রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ইনচার্জ (সিআইসি) আব্দুল হান্নান বলেন,  গত রবিবার রাতে ভারতের হায়দারাবাদ থেকে বাংলাদেশে প্রবেশ করেছে পরিবারটি। ইতোমধ্যে তাদের ইউএনএইচসিআর ও আইওএমের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

টেকনাফের লেদা রোহিঙ্গা শিবিরের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আলমও ভারত থেকে আসা পরিবারটির কোয়ারেন্টিনে রাখার খবর নিশ্চিত করেন।  

টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সাইফুল ইসলাম বলেন, রোহিঙ্গাদের অবৈধ যাতায়াত টেকনাফকে ঝুঁকির মধ্যে ফেলছে। তিনি রোহিঙ্গা পরিবারটিকে কোয়ারেন্টিনে নেওয়ার সত্যতা নিশ্চিত করেন।

তিনি আরও বলেন, এসময় বিদেশ ফেরতদের তালিকায় অনেককে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। ধারণা করা হচ্ছে এরা রোহিঙ্গা। তাই উদ্বেগ বাড়ছে এখানে।

Please Share This Post in Your Social Media

Powered by : Oline IT