ফরিদপুরে বিএনপির মিছিলে পুলিশের গুলি, আহত শতাধিক, আটক ২০ ফরিদপুরে বিএনপির মিছিলে পুলিশের গুলি, আহত শতাধিক, আটক ২০ – CTG Journal

বৃহস্পতিবার, ২২ অক্টোবর ২০২০, ০৮:৫২ অপরাহ্ন

        English
শিরোনাম :
জাজিরা এয়ারওয়েজের ফ্লাইটে কুয়েত প্রবাসীর মৃত্যু, সন্ধান মেলেনি পরিবারের বৈরী আবহাওয়ায় সেন্টমার্টিনে আবারও আটকা দু’শতাধিক পর্যটক কুষ্টিয়ায় ২২ দিনে ধর্ষণের অভিযোগে ৮ মামলা মেশিন ছুঁলেই ৪২ পরীক্ষার রিপোর্ট: চিকিৎসার নামে অভিনব প্রতারণা, ভুয়া ডাক্তার গ্রেপ্তার অন্তঃসত্ত্বা নারীকে ধর্ষণ ও ভিডিও ধারণ, গ্রেফতার ৩ সাগরে নিম্নচাপ, অতি ভারী বৃষ্টির সতর্কতা চট্টগ্রামে ১৪ মাদকসেবীকে দণ্ড বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে কটূক্তি, ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা নাইক্ষ্যংছড়ির পাহাড়ে সবজি চাষে করে স্বাবলম্বী সানু বড়ুয়া অস্ত্র ঠেকিয়ে প্রবাসীর স্ত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ, যুবলীগ নেতা গ্রেফতার নিক্সন চৌধুরীর জামিন আপিলেও বহাল সুরঞ্জিত সেন হত্যাচেষ্টা মামলা: বাবর-আরিফকে আসামি করে অভিযোগ গঠন
ফরিদপুরে বিএনপির মিছিলে পুলিশের গুলি, আহত শতাধিক, আটক ২০

ফরিদপুরে বিএনপির মিছিলে পুলিশের গুলি, আহত শতাধিক, আটক ২০

সিটিজি জার্নাল নিউজঃ ফরিদপুরে বিএনপির শান্তিপূর্ণ মিছিলে পুলিশের বেধড়ক পিটুনি ও গুলিতে সাংবাদিকসহ শতাধিক আহত হয়েছে। আজ মঙ্গলবার সকাল ১১টার দিকে ফরিদপুর শহরের সুপার মার্কেট চত্বরে এ ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও বিভিন্ন সূত্রে জানা গেছে, বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে আজ মঙ্গলবার জেলা বিএনপির উদ্যোগে বিক্ষোভ মিছিলের আয়োজন করা হয়। সকালে থেকেই বিভিন্ন ওয়ার্ড থেকে মিছিল নিয়ে সুপার মার্কেট চত্বরে আসতে থাকেন নেতাকর্মীরা। ফরিদপুর কোতোয়ালি থানার এসআই নাসিরের নেতৃত্বে পুলিশ মিছিলে বাধা দিতে থাকে।

একপর্যায়ে পুলিশ মিছিলকারীদের ব্যানার কেড়ে নেয়। এ সময় কয়েক দফায় নেতাকর্মীদের লাঠিপেটা ও সাংবাদিকদের দায়িত্ব পালনে বাধা দেওয়া হয়। বেলা সোয়া ১১টার দিকে বিএনপির ফরিদপুর বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক শামা ওবায়েদ ইসলাম সেখানে পৌঁছলে পুলিশ বেপরোয়া হয়ে ওঠে। এসআই নাসির, হারুন, আবুল ও কনস্টেবল নাহিদুলের নেতৃত্বে পুলিশ বাঁশের লাঠি দিয়ে জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ মোদাররেছ আলী ইছা, যুগ্ম সম্পাদক সৈয়দ জুলফিকার হোসেন জুয়েলসহ শতাধিক নেতাকর্মীকে বেপরোয়া পেটাতে থাকলে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন তারা।

এ সময় মিছিলটি ছত্রভঙ্গ হয়ে যায়। পরে নেতাকর্মীরা সংগঠিত হয়ে পুলিশের ওপর ইটপাটকেল ছুঁড়লে পুলিশ কোনরকম সতর্ক না করে সরাসরি গুলি চালায়। এতে সাংবাদিক, দলীয় নেতাকর্মী এবং ব্যবসায়ীসহ শতাধিক ব্যক্তি আহত হন। খবর পেয়ে পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগের (ডিবি) সদস্যরা ঘটনাস্থলে যান।

ডিবি পুলিশের সদস্যরা সুপার মার্কেটসহ চৌরঙ্গী মোড়সহ পুরো এলাকার দোকানপাট, বাড়িঘর ও পথচারীদের ওপর চড়াও হন। এতে পুরো এলাকায় ত্রাস ছড়িয়ে পড়ে। মানুষ দোকানপাট বন্ধ করে নিরাপদ এলাকায় ছুটতে থাকে। এ সময় পুলিশ মোদাররেছ আলী ইছা ও জুলফিকার হোসেন জুয়েলসহ ২০ নেতাকর্মীকে আটক করে।

ফরিদপুর কোতোয়ালি থানার ওসি নাজিম উদ্দিন আহমেদ বলেন, ‘বিএনপির নেতাকর্মীরা পুলিশের ওপর হামলা করলে আত্মরক্ষার্থে পুলিশ গুলি ছোড়ে।’

এদিকে, বিএনপি নেত্রী শামা ওবায়েদ ইসলাম ফরিদপুর প্রেসক্লাবে তাৎক্ষণিক এক প্রেসব্রিফিং করে পুলিশের নারকীয় হামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান। তিনি পুলিশের এ নগ্ন হামলায় জড়িতদের বিচারের দাবি জানান।

একে/এম

Please Share This Post in Your Social Media

Powered by : Oline IT