চাঁদপুরে পল্লি চিকিৎসক হত্যা মামলা: একজনের মৃত্যুদণ্ড, দু’জনের যাবজ্জীবন চাঁদপুরে পল্লি চিকিৎসক হত্যা মামলা: একজনের মৃত্যুদণ্ড, দু’জনের যাবজ্জীবন – CTG Journal

বুধবার, ২১ অক্টোবর ২০২০, ০৩:৪৯ অপরাহ্ন

        English
শিরোনাম :
৩ বিজিবি কর্তৃক উল্টাছড়ি হাইস্কুলের পার্শ্বে যাত্রী ছাউনি নির্মান গ্রেডিং বিহীন সনদ পাবে জেএসসি-জেডিসি পরীক্ষার্থীরা কমিটি নিয়ে অভিযোগের প্রতিকার আছে: কাদের চসিকের স্কেভেটর চাপায় শিশুর প্রাণ গেল খুলশীতে কথিত ইমাম মাহাদীর ঘনিষ্ঠ সহযোগী গ্রেফতার মাধ্যমিকের বার্ষিক পরীক্ষা হচ্ছে না শারদীয় দূর্গা পূজা উপলক্ষে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের মাঝে উপহার সামগ্রী বিতরণ করলেন কাউন্সিলর বিষ্ণু দত্ত গর্জনিয়া যুবলীগ সভাপতি হাফেজ সন্ত্রাসী হামলায় গুরুতর আহত বান্দরবানে বন্দুকযুদ্ধে ইয়াবা কারবারি নিহত : ৪০ হাজার ইয়াবাসহ অস্ত্র উদ্ধার বঙ্গোপসাগরে লঘুচাপ: সমুদ্র বন্দরে ৩, নদীতে ১ নম্বর সংকেত ভোক্তা ঋণে প্রভিশন কমালো কেন্দ্রীয় ব্যাংক রাতে পাহাড় কাটার সময় ধসে দুই শ্রমিক নিহত
চাঁদপুরে পল্লি চিকিৎসক হত্যা মামলা: একজনের মৃত্যুদণ্ড, দু’জনের যাবজ্জীবন

চাঁদপুরে পল্লি চিকিৎসক হত্যা মামলা: একজনের মৃত্যুদণ্ড, দু’জনের যাবজ্জীবন

সিটিজি জার্নাল নিউজঃ চাঁদপুরের শাহরাস্তি উপজেলায় পল্লি চিকিৎসক আবুল বাসারকে হত্যার দায়ে মনির হোসেন নামে এক আসামির মৃত্যুদণ্ড এবং অপর দুই আসামি মো. আব্দুল আজিজ ও মো. আমির হোসেনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। সোমবার দুপুরে চাঁদপুর জেলা ও দায়রা জজ সালেহ উদ্দিন আহমেদ এ দণ্ডাদেশ দেন।

মামলার রায়ে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডপ্রাপ্তদের ৫ হাজার টাকা অর্থদণ্ড দেওয়া হয়। পাশাপাশি ৩ আসামিকে দস্যুতার দায়ে আরও ১০ বছর করে সশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। যাবজ্জীবন দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি আমির হোসেন পলাতক থাকায় তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়না জারি করা হয়।

মামলার রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী পাবলিক প্রসিকিউটর অ্যাডভোকেট আমান উল্যাহ এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন। মামলায় সহকারী পাবলিক প্রসিকিউটর ছিলেন- অ্যাডভোকেট মোক্তার হোসেন অভি। আসামিপক্ষের আইনজীবী ছিলেন অ্যাডভোকেট ইকবাল বিন বাশার।

মামলার বিবরণ থেকে জানা যায়, ২০১১ সালের ৯ জানুয়ারি পল্লি চিকিৎসক আবুল বাসার ওরফে বসু ডাক্তারকে কুপিয়ে ১ লাখ ৩০ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেয় আসামিরা। আহত পল্লী চিকিৎসক আবুল বাসার কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

মৃত্যুর আগে তিনি হামলাকারীদের নাম বলে যান। পরদিন ১০ জানুয়ারি নিহত বসু ডাক্তারের ছেলে মো. জহিরুল আসলাম বাদি হয়ে শাহরাস্তি থানায় হত্যা মামলা করেছিলেন।

একে/এম

Please Share This Post in Your Social Media

Powered by : Oline IT