ফিরোজ শাহ হাউজিং এস্টেটে উচ্ছেদ অভিযান, ৩০ বছর ধরে অবৈধ দখলে থাকা ২ একর জায়গা উদ্ধার ফিরোজ শাহ হাউজিং এস্টেটে উচ্ছেদ অভিযান, ৩০ বছর ধরে অবৈধ দখলে থাকা ২ একর জায়গা উদ্ধার – CTG Journal

শনিবার, ২৪ অক্টোবর ২০২০, ০৫:২৩ অপরাহ্ন

        English
ফিরোজ শাহ হাউজিং এস্টেটে উচ্ছেদ অভিযান, ৩০ বছর ধরে অবৈধ দখলে থাকা ২ একর জায়গা উদ্ধার

ফিরোজ শাহ হাউজিং এস্টেটে উচ্ছেদ অভিযান, ৩০ বছর ধরে অবৈধ দখলে থাকা ২ একর জায়গা উদ্ধার

সিটিজি জার্নাল নিউজঃ নগরীর পশ্চিম ফিরোজ শাহ কলোনীতে অবৈধভাবে গড়ে তোলা একটি হাউজিং এস্টেটের বিভিন্ন স্থাপনা ভেঙ্গে দিয়ে গৃহায়ণ কর্তৃপক্ষের দুই একর জায়গা উদ্ধার করেছে জেলা প্রশাসন। এই অভিযানে ৬০ পরিবার উচ্ছেদ হয়েছে– যাদের বেশিরভাগই গৃহায়ণ কর্তৃপক্ষসহ অন্যান্য সরকারি কার্যালয়ের কর্মচারী।

তারা জানিয়েছেন, এ জায়গাটিকে হাউজিং হিসেবে গড়ে তুলতে অনেক আগে থেকে তারা সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে আবেদন করে আসছিলেন। গতকাল সকাল থেকে আকবার শাহ থানাধীন এলাকাটিতে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সৈয়দ মুরাদ আলীর নেতৃত্বে অভিযান পরিচালনা করেন জেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমাণ আদালত। অভিযানে বুলডেজার দিয়ে বিভিন্ন স্থাপনা গুড়িয়ে দেওয়া হয়। এ সময় জেলা প্রশাসন, গৃহায়ণ কর্তৃপক্ষের লোকজনের পাশাপাশি বিপুল সংখ্যক পুলিশ ও এপিবিএন সদস্য উপস্থিত ছিলেন।

জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সৈয়দ মোরাদ আলী বলেন, অভিযানে ৬০টি স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়। গৃহায়ণ কর্তৃপক্ষের ২ একর জায়গার উপর ঘরবাড়ি তুলে সরকারি কর্মচারীরা ৩০ বছর ধরে এখানে বসবাস করে আসছিলেন। বর্তমানে আইনগত কোন বাধা না থাকায় সরকারি জায়গা পুনরুদ্ধারে এই উচ্ছেদ চালানো হয়েছে। নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জানিয়েছেন, এর আগে অবৈধ দখলে থাকা এই জায়গাটি উচ্ছেদের জন্য গৃহায়ণ কর্তৃপক্ষ জেলা প্রশাসনের কাছে চিঠি দেন। সেই চিঠির আলোকেই এই উচ্ছেদ কার্যক্রম চালানো হয়েছে।

এদিকে জেলা প্রশাসনের কাছে নিজ থেকে দখল ছেড়ে দেওয়ার জন্য কিছুটা সময় চাওয়া হলেও তা দেওয়া হয়নি বলে অভিযোগ করেছেন এখানে বসতি স্থাপনকারীরা। গণপূর্ত অধিদপ্তরের কর্মচারী আবুল হোসেন বলেন, এই জায়গায় আমাদের মতো সরকারি কর্মচারীদের থাকার জন্য আবাসন নির্মাণের ব্যাপারে ঢাকায় (গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়) একটি আবেদন করা হয়েছিল। সোমবার উচ্ছেদ কার্যক্রম চালানোর আগের দিন জেলা প্রশাসকের কাছে গিয়ে আমরা কয়েকদিন সময় চেয়েছিলাম। তিনি বলেন, ছেলে এসএসসি পরীক্ষার্থী। হঠাৎ করে বাসা থেকে উচ্ছেদ হওয়ায় খুব সমস্যায় পড়তে হয়েছে।

এদিকে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, বুলডেজার দিয়ে উচ্ছেদ কার্যক্রম চালানোর সময় নির্ধারিত সীমানার বাইরে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের সীমানায় অবস্থিত স্থাপনাও ভুলবশত ভেঙে ফেলা হয়েছে। সেক্ষেত্রে গৃহায়ণ কর্তৃপ এসব স্থাপন পূর্ণ নির্মাণের ব্যবস্থা করে দেবে বলে ঘটনাস্থলেই সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা জানিয়ে দেন।

জানা গেছে, ফিরোজ শাহ হাউজিং এস্টেট নামে উল্লেখিত জায়গায় বাড়ি–ঘর নির্মাণ করা হয়েছিল। এজন্য তাদের পক্ষ থেকে একটি কমিটিও করা হয়।

একে/এম

Please Share This Post in Your Social Media

Powered by : Oline IT