‘নিয়াজুলের অস্ত্র’ উদ্ধার ‘নিয়াজুলের অস্ত্র’ উদ্ধার – CTG Journal

শনিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২০, ০৫:৩৮ পূর্বাহ্ন

        English
শিরোনাম :
ওআইসি’র পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের বৈঠক, আলোচনা হবে রোহিঙ্গা ইস্যুতেও আরও ২০ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ২২৭৩ করোনায় মৃতের সংখ্যা ১৪ লাখ ৩৭ হাজার ছাড়িয়েছে দ্রুত সময়ে ভ্যাকসিন পেতে সরকার সমন্বিত উদ্যোগ নিয়েছে: কাদের নাইক্ষ্যংছড়িতে ৪২ তম জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মেলা অনুষ্ঠিত লক্ষ্য থাকলে এগিয়ে যাওয়া সহজ হয়: প্রধানমন্ত্রী মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য বাড়ি নির্মাণের অভিজ্ঞতা নিতে ১৬ কর্মকর্তার বিদেশ সফরের প্রস্তাব করোনাকালে চলছে কোচিং সেন্টার, বন্ধ করল প্রশাসন করোনার পরও লটারিতে ভর্তি চলবে: শিক্ষামন্ত্রী ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিঃ এর উদ্যোগে বসুন্ধরা আবাসিক এলাকায় সি.আর.এম উদ্বোধন সাংবাদিক কনক সারওয়ার ও ইলিয়াসসহ ৩৫ জনের ব্যাংক হিসাব তলব প্রায় ৭ কোটি ডোজ ভ্যাকসিন পাচ্ছে বাংলাদেশ
‘নিয়াজুলের অস্ত্র’ উদ্ধার

‘নিয়াজুলের অস্ত্র’ উদ্ধার

নারায়ণগঞ্জে মেয়র সেলিনা হায়াৎ আইভী ও তাঁর সমর্থকদের ওপর হামলার ঘটনায় নিয়াজুল ইসলামের অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। তবে নিয়াজুল গ্রেপ্তার হননি।

গতকাল বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত দুইটার দিকে নগরীর চাষাঢ়া সাধু পৌলের গির্জার সামনের ফুলের টবে পলিথিনে মোড়ানো অবস্থায় নিয়াজুলের পিস্তলটি উদ্ধার করে পুলিশ। জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. শরফুদ্দিন জানান, পিস্তলের ম্যাগাজিনে ১০টি গুলি ছিল।

গত ১৬ জানুয়ারি নগরীর চাষাঢ়ায় ফুটপাতে হকার বসাকে কেন্দ্র করে মেয়র আইভী ও তাঁর সমর্থকদের ওপর হামলা হয়। এতে সাংসদ শামীম ওসমানের সমর্থকেরা জড়িত ছিলেন বলে অভিযোগ ওঠে। মেয়র ও তাঁর সমর্থকদের জমায়েতে অস্ত্র উঁচিয়ে গুলি করে আলোচনায় আসেন নিয়াজুল ইসলাম খান। পরে তাঁকে গণপিটুনি দেওয়া হয়। হামলায় মেয়র আইভী ও সাংবাদিকসহ অর্ধশতাধিক আহত হন। ঘটনার পর থেকে নিয়াজুল পলাতক।

সেলিনা হায়াৎ আইভীর ওপর ইটপাটকেল ছোড়ার একপর্যায়ে নিয়াজুল ইসলাম খানের হাতে অস্ত্র দেখা যাচ্ছে। চাষাঢ়া, নারায়ণগঞ্জ, ১৬ জানুয়ারি। ছবি: প্রথম আলোসেলিনা হায়াৎ আইভীর ওপর ইটপাটকেল ছোড়ার একপর্যায়ে নিয়াজুল ইসলাম খানের হাতে অস্ত্র দেখা যাচ্ছে। চাষাঢ়া, নারায়ণগঞ্জ, ১৬ জানুয়ারি। ওই দিনের ঘটনার পাঁচ দিন পর মেয়র আইভীকে পরিকল্পিতভাবে হত্যাচেষ্টার অভিযোগে অস্ত্রধারী নিয়াজুলসহ নয়জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত আরও এক হাজার ব্যক্তিকে আসামি করে অভিযোগ দাখিল করা হয়। সিটি করপোরেশনের আইন কর্মকর্তা জি এম এ সাত্তার বাদী হয়ে সদর মডেল থানায় অভিযোগ দাখিল করেন। তবে পুলিশ এটি এখনো মামলা হিসেবে নেয়নি। সদর থানার পরিদর্শক জয়নাল আবেদীন বাদী হয়ে পুলিশের ওপর হামলা ও সরকারি কাজে বাধা দেওয়ার অভিযোগে অজ্ঞাত ৫০০ লোকের বিরুদ্ধে মামলা করেছে।

Please Share This Post in Your Social Media

Powered by : Oline IT