মিরসরাইয়ে খেলা নিয়ে বিরোধের জেরঃ এক ছাত্রকে কুপিয়ে হত্যা চেষ্টা মিরসরাইয়ে খেলা নিয়ে বিরোধের জেরঃ এক ছাত্রকে কুপিয়ে হত্যা চেষ্টা – CTG Journal

রবিবার, ২৪ জানুয়ারী ২০২১, ০৫:৩৮ পূর্বাহ্ন

        English
শিরোনাম :
এবার যুক্তরাজ্য থেকে এলে ৭ দিনের বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টিন ফোন ডিরেক্টরি বিক্রি করা যখন অপরাধ জাতীয় ক্রিকেট দলে খেলবে পুলিশ সদস্যরাও: আইজিপি পাগলা মসজিদের দানবাক্সে মিললো আড়াই কোটি টাকা আবারও নেমে গেছে তাপমাত্রা, তিন জেলায় শৈত্যপ্রবাহ মানিকছড়িতে মুজিববর্ষ ক্রিকেট টুর্নামেন্ট উদ্বোধন রাতে নিখোঁজ, সকালে পুকুরে মিলল লাশ ৩ নদীর সম্মিলিত প্রবাহে বঙ্গোপসাগরে প্রতিদিন ৩ বিলিয়ন মাইক্রোপ্লাস্টিক প্রবেশ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দিতে মানতে হবে যে সব বিষয় দেশে করোনাভাইরাসে মৃতের সংখ্যা ৮ হাজার ছাড়াল থানচিতে প্রধানমন্ত্রীর ‘উপহার’ ঘর পেল ৩৪ ভূমিহীন পরিবার মেয়র হতে ডা. শাহাদাতের ৭৫ প্রতিশ্রুতি
মিরসরাইয়ে খেলা নিয়ে বিরোধের জেরঃ এক ছাত্রকে কুপিয়ে হত্যা চেষ্টা

মিরসরাইয়ে খেলা নিয়ে বিরোধের জেরঃ এক ছাত্রকে কুপিয়ে হত্যা চেষ্টা

নিজস্ব প্রতিনিধি, মিরসরাইঃ চট্টগ্রামের মিরসরাইয়ে ক্রিকেট খেলাকে কেন্দ্র করে এক কলেজ ছাত্রকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে হত্যা চেষ্টা করেছে প্রতিপক্ষের লোকজন। আহত ওই ছাত্রের নাম নুর ইসলাম আরিফ। সে উপজেলার মহাজনহাট ফজলুর রহমান কলেজের ছাত্র।

এই ঘটনায় আরিফের পিতা মীর হোসেন বাদি হয়ে ৪জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত সহ ১৫জনের বিরুদ্ধে জোরারগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। আরিফ বর্তমানে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

আরিফের পিতা মীর হোসেন অভিযোগ করেন, গত ৩ জানুয়ারি আমার বাড়ির পাশে মাঠে ক্রিকেট খেলতে যায় আরিফ। খেলায় প্রতিপক্ষের খেলোয়াড়দের সাথে খেলা নিয়ে বাকবিতন্ডা হয়। এরপর সে বাড়ি চলে আসে। পরে সন্ধ্যায় আরিফ মহাজনহাট বাজারে গেলে আগে থেকে ওঁৎপেতে থাকা প্রতিপক্ষের নিলয়, মোহাম্মদ রায়হান, ইমাম হোসেন, রুবেলের নেতৃত্বে ১২-১৫ জনের একটি গ্রুপ তাকে একটি দোকান থেকে ডেকে নিয়ে অতর্কিতভাবে হামলা চালায়।

পরে ধারালো অস্ত্র দিয়ে আমার ছেলেকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে হত্যা চেষ্টা করে। তার আত্মচিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এলে তারা আরিফকে রেখে পালিয়ে যায়। স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার বারইয়ারহাট মেডিকেল সেন্টারে নিয়ে যায়। কিন্তু তার শারীরিক অবস্থার অবনতি দেখে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে (চমেক) প্রেরণ করা হয়েছে। এখনো তার শারীরিক অবস্থা আশংকাজনক। আমি ছেলের উপর হামলারকারী উপযুক্ত শাস্তি চাই।

এই বিষয়ে জোরারগঞ্জ থানার সেকেন্ড অফিসার অফিসার বিপুল দেবনাথ জানান, হামলার ঘটনায় একটি অভিযোগ পেয়েছি। তদন্তপুর্বক দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।

Please Share This Post in Your Social Media

Powered by : Oline IT