কোথায় কীভাবে টাকা পাচার, প্রকাশ হবে সময়মতো -ফখরুল কোথায় কীভাবে টাকা পাচার, প্রকাশ হবে সময়মতো -ফখরুল – CTG Journal

বৃহস্পতিবার, ০১ অক্টোবর ২০২০, ০২:১৪ পূর্বাহ্ন

        English
শিরোনাম :
কাপ্তাইয়ে জাতীয় কন্যা শিশু দিবস উদযাপন কাজের জন্য সৌদি আরবে যেতে চাইলে চাকরিদাতার ছাড়পত্র লাগবে করোনাভাইরাস: দেশে ৩২ জন মৃত্যুর দিনে শনাক্ত ১,৪৩৬ বান্দরবান সাংবাদিক ইউনিয়নের আত্মপ্রকাশ রায় শুনে কেঁদেছেন রিফাতের বাবা: জানালেন সন্তুষ্টি কথা চট্টগ্রামে ভিটামিন এ ক্যাপসুল খাবে সাড়ে ৫ লাখ শিশু খাগড়াছড়িতে ধর্ষণ রোধে পদক্ষেপ জানতে চেয়ে ডিসিকে আইনি নোটিশ বান্দরবানে এ” প্লাস ক্যাম্পেইন উপলক্ষ্যে সাংবাদিকদের কর্মশালা বন্যা: কুড়িগ্রামে কর্মহীনতা ও খাদ্য সংকট প্রকট রিফাত হত্যা: মিন্নিসহ ৬ জনের ফাঁসির রায় ইকামার মেয়াদ বাড়ানোর কোনও ঘোষণা সৌদি সরকার দেয়নি! করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা তিন কোটি ৩৮ লাখ ছাড়িয়েছে
কোথায় কীভাবে টাকা পাচার, প্রকাশ হবে সময়মতো -ফখরুল

কোথায় কীভাবে টাকা পাচার, প্রকাশ হবে সময়মতো -ফখরুল

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, আওয়ামী লীগের কর্মকাণ্ড লিপিবদ্ধ করা হচ্ছে। কোথায় কীভাবে টাকা পাচার করা হচ্ছে, বিভিন্ন পল্লি গড়ে তোলা হচ্ছে—সেই খবর দেশের মানুষ জানে। সময়মতো তা সবই প্রকাশিত হবে।
রোববার ঢাকার ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে এক আলোচনা সভায় মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এ মন্তব্য করেন। বিএনপির জ্যেষ্ঠ ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের ৫৩তম জন্মদিন উপলক্ষে জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দল আলোচনা সভাটির আয়োজন করে। এ ছাড়া চারুশিল্পী সংসদ নামের একটি সংগঠনের আয়োজনে চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ করেন প্রধান অতিথি ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, তারেক রহমানের বিরুদ্ধে সরকার সারা বিশ্বে অত্যন্ত সচেতনভাবে মিথ্যা প্রচারণা চালিয়েছে। এখন পর্যন্ত তাঁর বিরুদ্ধে একটি সম্পত্তির হিসাব জনগণের সামনে তুলে ধরতে পারেনি। একটি অ্যাকাউন্ট তুলে ধরতে পারেনি, যে অ্যাকাউন্টে তাঁর অবৈধ অর্থ আছে। আওয়ামী লীগের সব কর্মকাণ্ডও লিপিবদ্ধ হচ্ছে। তিনি বলেন, স্বাধীনতার যে অর্জন, তা ধ্বংস করার জন্য সরকার পরিকল্পনা করছে। এটা এখন জাতির সামনে বড় সংকট।
ফখরুল ইসলাম আলমগীর অভিযোগ করেন, এই সরকারের কোনো ধরনের আত্মসম্মানবোধ নেই। দেশের স্বার্থ বিবেচনা না করে সরকার মিয়ানমারের সঙ্গে সমঝোতা চুক্তি সই করেছে। যেখানে রোহিঙ্গাদের ফেরানোর বিষয়ে স্পষ্ট কোনো দিকনির্দেশনা নেই। তিনি বলেন, ‘আমরা স্পষ্ট করে বলতে চাই, আগামী নির্বাচনে জনগণকে সঙ্গে নিয়ে জনগণের স্বার্থ রক্ষার জন্য আগামী নির্বাচনে জয়লাভ করবই। এ নির্বাচন অবশ্যই হবে। তবে নির্বাচন হতে হবে নিরপেক্ষ নির্দলীয় সরকারের অধীনে।’
দেশের অর্থনীতিকে ‘তাসের ঘর’-এর সঙ্গে তুলনা করে ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, সরকার একটি দুর্বল ভিত্তির ওপর দেশের অর্থনীতিকে দাঁড় করিয়েছে। দেশে নাকি সাংঘাতিক উন্নয়ন হচ্ছে! দেশ নাকি উন্নয়নের রোল মডেল! খবরের কাগজে ব্যাংকগুলোর অবস্থা কী কাহিল হয়ে পড়েছে, যেকোনো দিন ব্যাংকিং ব্যবস্থা ধসে পড়তে পারে। তিনি বলেন, এদিকে সড়কের উন্নয়নে মন্ত্রী সারা দিন বলছেন যে কোনো সমস্যা নেই, সব ঠিক আছে। অথচ রাস্তায় বের হলে দিনাজপুর যেতে ২০ ঘণ্টা লাগে, রাজশাহী যেতে ১৬ ঘণ্টা লাগে—এই হলো উন্নয়নের নমুনা।
সরকারের সময় শেষ হয়ে এসেছে দাবি করে ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, বোঁ বোঁ করে ঘুরে লাভ নেই। সরকারের মেয়াদ শেষ। তিনি বলেন, ‘আমরা পরিষ্কার করে বলেছি, আমরা এ দেশে শান্তির রাজনীতি করতে চাই। আসুন, সমঝোতা করুন। একটি সুষ্ঠু, সবার কাছে গ্রহণযোগ্য নির্বাচনের দিকে যান। এলোমেলো করে ঘুরে লাভ নেই।’
জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি শফিউল বারীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম মহাসচিব ও ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির সভাপতি হাবিব-উন-নবী খান সোহেল, ভাইস চেয়ারম্যান শওকত মাহমুদ, স্বেচ্ছাসেবকবিষয়ক সম্পাদক মীর সরাফত আলী সফু প্রমুখ। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক আবদুল কাদির ভূঁইয়া জুয়েল।

Please Share This Post in Your Social Media

Powered by : Oline IT