অনুসন্ধানী সাংবাদিকতায় এখনো পিছিয়ে বাংলাদেশ অনুসন্ধানী সাংবাদিকতায় এখনো পিছিয়ে বাংলাদেশ – CTG Journal

মঙ্গলবার, ২৪ নভেম্বর ২০২০, ১২:৪৬ পূর্বাহ্ন

        English
শিরোনাম :
বাংলাদেশের বৈদেশিক ঋণ ৪৪ হাজার মিলিয়ন ডলার চন্দ্রপাহাড়ে পর্যটন কেন্দ্র নিয়ে তৃতীয় পক্ষ যাতে সুযোগ নিতে না পারে সেজন্য সর্তক থাকার আহ্বান মাস্ক না পরলে আরও কঠোর হবে সরকার ক্যাম্পাস ছাড়াও বিভাগীয় শহরে হবে ঢাবির ভর্তি পরীক্ষা প্রজেক্ট বিল্ডার্স লিমিটেডের চেক প্রতারণা এমডি ও পরিচালকের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা দুর্নীতির মামলা থেকে খালাস ইশরাক হোসেন নাইক্ষ্যংছড়ি থানার আলমগীর হোসেন আবারও জেলার শ্রেষ্ঠ ওসি মনোনীত কোভিড-১৯: একদিনে ২৮ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ২,৪১৯ কারা ভ্যাকসিন পাবেন, তালিকা করছে সরকার একদিনের ব্যবধানে বেড়েছে করোনা আক্রান্ত, শনাক্ত ২৪২ বিদেশে অর্থ পাচারকারীদের যাবতীয় তথ্য চেয়েছেন হাইকোর্ট ফাইজারের ভ্যাকসিনকে এ সপ্তাহেই ছাড়পত্র দিতে পারে যুক্তরাজ্য
অনুসন্ধানী সাংবাদিকতায় এখনো পিছিয়ে বাংলাদেশ

অনুসন্ধানী সাংবাদিকতায় এখনো পিছিয়ে বাংলাদেশ

নেলসন মেন্ডেলার দেশে গিয়েছিলাম সাংবাদিকতার পাঠ নিতে। একটু অন্য রকম অনুভূতিই কাজ করছিল। অনুসন্ধানী সাংবাদিকদের সংগঠন ‘গ্লোবাল ইনভেস্টিগেটিভ জার্নালিজম নেটওয়ার্কের’ আয়োজনে ‘গ্লোবাল ইনভেস্টিগেশন জার্নালিজম কনফারেন্স ২০১৭’; দক্ষিণ আফ্রিকার জোহানেসবার্গের অনুষ্ঠিত এই সম্মেলনে অংশ নিয়েছেন বিশ্বের ১৩০টি দেশের প্রায় ১২শ সাংবাদিক।

বিশাল এই আয়োজনে অংশ নিতে গেল ১৫ নভেম্বর রংধনুর দেশ দক্ষিণ আফ্রিকায় উড়ে গিয়েছিলেন বিশ্বের বিভিন্ন দেশের সংবাদকর্মীরা। তবে সম্মেলনের মূল আসর শুরু হয়েছে ১৬ তারিখ থেকে। হাজার হাজার মাইল পেরিয়ে নতুন এই দেশে এসে আশেপাশে ঢুঁ মারার ইচ্ছা নিবৃত করেই বাধ্য স্কুল শিক্ষার্থীর মতো অংশ নিলাম প্রতিটি সেশনে। আবিষ্কার করলাম সাংবাদিকতার বিশাল অজানা অধ্যায়। সম্মেলন শেষ করে বাংলাদেশের প্রতিনিধি দলের সব সাংবাদিকের মুখেই শোনা গেল, অনুসন্ধানী সাংবাদিকতায় আমরা এখনো অনেক পিছিয়ে।

নিত্যনতুন প্রযুক্তির ব্যবহার অনুসন্ধানী সাংবাদিকদের তথ্য অনুসন্ধানে নতুন নতুন ক্ষেত্র উন্মোচন করছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের বহুল ব্যবহার ও তথ্য ডিজিটালকরণের ফলে একজন অনুসন্ধানী সাংবাদিকের কাজের সুযোগও বেড়েছে। কিন্তু এসব ব্যবহারে অদক্ষতার কারণেই আমাদের দেশের সাংবাদিকরা পিছিয়ে পড়েছেন।

পাঁচদিনের এই আসরের প্রতিটি মুহূর্তই ছিল উত্তেজনাপূর্ণ। একই সময় চলছিল ১১টি করে সেশন। বিশ্বের খ্যাতনামা পত্রপত্রিকার সিনিয়র সাংবাদিক, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, গবেষকদের নিয়ে সবমিলিয়ে দেড়শ’র ওপর অধিবেশন, ওয়ার্কশপের আলোচনা; কোনটা ছেড়ে কোনটায় বসব অবস্থা। তবে অনুসন্ধানী মনের দরজায় কড়া নেড়েছে আন্তর্জাতিক সংস্থা ‘দি ইন্টারসেপ্টের’ মার্গট উইলিয়ামসের সেশন। বিশ্বখ্যাত নিউইয়র্ক টাইমস, ওয়াশিংটন পোস্টের সাবেক এই কর্মী দেখিয়েছেন আমরা যে একটি তথ্যের জন্য যেভাবে ‘গরু খোঁজা’ খুঁজতে হয় সেটা একটা সাধারণ টুলস ব্যবহার করে খুব সহজেই পাওয়া সম্ভব।

মার্গট উইলিয়ামস ‘ইনভেস্টিগেটিভ রিসার্চ লিংক’ নামে অনলাইনে তথ্য অনুসন্ধানে বিভিন্ন লিংকের লিস্ট তৈরি করে দেখিয়েছেন। যদিও সেটি ছিল তার দেশের বিভিন্ন সংস্থার তথ্যের হাব। তবে সেটি দেখে যে কেউ নিজের দেশের তথ্য পাওয়া যেতে পারে এমন সংস্থার তালিকা তৈরি করতে পারেন। পরবর্তীতে এসব লিংকে প্রকাশিত তথ্য ব্যবহার করে কোনো বিষয়ের ওপর অনুসন্ধানের মাধ্যমে রিপোর্ট করতে চাইলে সেটি করা সম্ভব। চাইলে আরো বিশদ অনুসন্ধানের সুযোগও রয়েছে।

ডিজিটাল প্লাটফর্মের মাধ্যমে সঠিক তথ্য খুঁজে বের করার কাজটি সহজ নয়। অনলাইনে লাখো কোটি তথ্যের ভিড়ে সঠিক তথ্যটি কীভাবে খুঁজতে হবে, সেটিও জানতে হয়। একই সঙ্গে সেটির গ্রহণযোগ্যতাও পরীক্ষা করার বিষয় রয়েছে। কাজটি কীভাবে করা যায় সেটা নিয়ে ‘ফ্যাক্ট চেকিং’ নামে একটি অধিবেশনে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে।

কম্পিউটার ও ইন্টারনেট প্রযুক্তি ব্যবহার করে তৈরি করা প্রোগ্রামিং টুলস কীভাবে সাংবাদিকতায় সহায়তা করতে পারে, তার ওপরও বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে। এসব টুলের ব্যবহার আমাদের কাছে এখনো অনেকখানিই অপরিচিত।

সারা পৃথিবীতেই অর্থ পাচার একটি জটিল প্রক্রিয়ার মধ্যে দিয়ে এগিয়ে চলেছে। এ কারণে আন্তর্জাতিক সাংবাদিকদের সঙ্গে যোগাযোগ না থাকলে বিষয়টির গভীরতা যাচাই করা সম্ভব হয় না। এ বিষয়টিতেও আরো বিশদ কাজ করতে নেটওয়ার্কিং সেশনও ছিল এ সম্মেলনে। আবার নিজেদের মধ্যে তথ্যর আদান প্রদানের মাধ্যমে গবেষণামূলক সাংবাদিকতা করতে সাংবাদিকদের আন্তঃযোগাযোগ বাড়ানোর ওপরও জোর দেয়া হয়। এ জন্য বেশ কিছু তথ্যভাণ্ডারও গড়ে তোলা হয়েছে, যাতে নিজেদের নেটওয়ার্কের কেউ প্রয়োজনীয় তথ্যটি খুঁজে নিতে পারে। সীমানা পেরিয়ে সংঘটিত অপরাধ বিষয়ে কাজ করতে নিজেদের মধ্যে যোগাযোগ বাড়ানোর বিকল্প নেই।

কনফারেন্সে একটি গুরত্বপূর্ণ সেশন ছিল তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে দুর্নীতির মাধ্যমে অর্জিত সম্পদ কীভাবে ট্র্যাক করতে হয়, তা হাতে কলমে দেখানো হয়। এছাড়াও সংখ্যালঘু নির্যাতন, রাজনৈতিক হত্যাকাণ্ড, চরমপন্থা ও সন্ত্রাসবাদ, দুর্নীতি, জালিয়াতি, লোভ এবং প্রতারণা নিয়ে অনেক বড় বড় প্রতিবেদন ও এর পেছনের মানুষগুলো সম্পর্কে জানার সুযোগ করে দেয় এই সম্মেলন। এছাড়া স্বাধীন গণমাধ্যম ও সাংবাদিকতাকে এগিয়ে নিতে বেশ কিছু উদ্যোগও এ সম্মেলনে উপস্থাপন করা হয়।

সৎ ও স্বচ্ছ সাংবাদিকতা মানবিকতা ও সমাজের কল্যাণের জন্য অগ্রগণ্য একটি কাজ। সম্মেলনে সাংবাদিকতার নীতি এবং নৈতিক সচেতনতার ওপর কয়েকটি অধিবেশন ছিল। সম্মেলনে দেখানো হয়, কীভাবে সৎ ও স্বচ্ছ সাংবাদিকতার অভাবে একটি গণমাধ্যম বিশ্বাসযোগ্যতা হারাতে পারে এবং অনেক বড় বড় গণমাধ্যমের পতন ঘটতে পারে। অন্যদিকে সাহসী সাংবাদিকরা ব্যক্তিগত ঝুঁকি থাকা সত্ত্বেও অনুসন্ধানী সাংবাদিকতার মাধ্যমে মানবিকতা ও সমাজের কল্যাণে কাজ করেন- এমন কয়েকজন বিখ্যাত সাংবাদিক তাদের কাজের নমুনা ও কাজ করার পদ্ধতি সম্মেলনে তুলে ধরেন, যা সবাইকে এ ধরনের কাজে নিজেকে যুক্ত করতে উৎসাহিত করেছে।

সাংবাদিকতার মূল ভিত্তিই হচ্ছে প্রমাণ। আর মূলত প্রমাণ হলো উপাত্ত। সেটা সরকারি নথিই হোক আর কর্তৃপক্ষের বিবৃতিই হোক, কিংবা নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কোনো সূত্র থেকেই হোক; উপাত্ত অবশ্যই সংরক্ষিত, সংযোজিত, বিশ্লেষিত এবং সর্বোপরি তার প্রতিচ্ছবি ফুটে উঠতে হবে প্রতিবেদনে। অনুসন্ধানী সাংবাদিকতার ক্ষেত্রে এসব আরো বেশি গুরুত্বপূর্ণ। আর এসব ক্ষেত্রে বর্তমান দিনে সবচেয়ে সহযোগী হিসেবে কাজ করে প্রযুক্তি।

অপরাধীরা সাধারণত তাদের অপকর্মের প্রমাণ লোপাটের চেষ্টায় থাকে। তারপরও তারা কোথাও না কোথাও তাদের অপরাধের রহস্যের সূত্র রেখে যায়। সেই সূত্র ধরেই সাধারণ মানুষের কল্যাণে একজন অনুসন্ধানী সাংবাদিক অপরাধের রহস্য উন্মোচন করতে পারেন। একজন অনুসন্ধানী সাংবাদিক আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য না হয়েও তার কাজের মাধ্যমে বৃহত্তর জনগোষ্ঠীর উপকার করতে পারেন।

কনফারেন্সে অংশগ্রহণকারী বাংলাদেশের প্রতিনিধি দলেরও ভাষ্য, কম্পিউটার অ্যাসিস্টেড রিপোর্টিংয়ের কলাকৌশল ও সুবিধাগুলো না জানার কারণে অনুসন্ধানী সাংবাদিকতায় দেশে গবেষণা প্রতিবেদন ও সরকার প্রকাশিত বিভিন্ন তথ্যর ওপর নির্ভর করে প্রতিবেদন তৈরি করা হয়ে থাকে। ডিজিটাল প্রযুক্তি ব্যবহার করে কাজ করার সুযোগ বাংলাদেশে রয়েছে।

Please Share This Post in Your Social Media

Powered by : Oline IT