সবার জন্য নিরাপদ পানি নিশ্চিত করতে হবে: প্রধানমন্ত্রী সবার জন্য নিরাপদ পানি নিশ্চিত করতে হবে: প্রধানমন্ত্রী – CTG Journal

শুক্রবার, ২৩ অক্টোবর ২০২০, ০২:০৮ অপরাহ্ন

        English
শিরোনাম :
পার্বত্য চট্টগ্রাম ছাত্রপরিষদ’র কমিটি গঠণ: সভাপতি সাকিব, সেক্রেটারি আসাদ পুলিশ হেফাজতে নির্যাতন ও মৃত্যু: কী ভাবছেন শীর্ষ কর্মকর্তারা? সমুদ্রবন্দরে ৪ নম্বর সতর্ক সংকেত সিএমপির বন্দরের ডিসিকে বদলি মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংকের লেনদেন এক সপ্তাহ বন্ধ থাকবে মানিকছড়িতে পুলিশের পক্ষ থেকে পুজা মন্ডবে মাক্স বিতরণ হালদার উজান মানিকছড়িতে তামাকের বদলে ফলজ বনজ ও নানা প্রজাতির মিশ্র চাষাবাদে ঝুঁকছে কৃষিজীবিরা নৌ ধর্মঘট প্রত্যাহার জাজিরা এয়ারওয়েজের ফ্লাইটে কুয়েত প্রবাসীর মৃত্যু, সন্ধান মেলেনি পরিবারের বৈরী আবহাওয়ায় সেন্টমার্টিনে আবারও আটকা দু’শতাধিক পর্যটক কুষ্টিয়ায় ২২ দিনে ধর্ষণের অভিযোগে ৮ মামলা মেশিন ছুঁলেই ৪২ পরীক্ষার রিপোর্ট: চিকিৎসার নামে অভিনব প্রতারণা, ভুয়া ডাক্তার গ্রেপ্তার
সবার জন্য নিরাপদ পানি নিশ্চিত করতে হবে: প্রধানমন্ত্রী

সবার জন্য নিরাপদ পানি নিশ্চিত করতে হবে: প্রধানমন্ত্রী

দেশের সব মানুষের জন্য নিরাপদ পানি নিশ্চিত করতে হবে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, ‘সবার জন্য সুপেয় পানি সরবরাহে সরকার কাজ করে যাচ্ছে। আমরা ইতোমধ্যে ৮৪ ভাগ মানুষের জন্য সুপেয় পানির ব্যবস্থা করেছি। বিশুদ্ধ পানির জন্য জনসচেতনতা সৃষ্টি করছি।’
মঙ্গলবার (২৭ মার্চ) বিশ্ব পানি দিবস উপলক্ষে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষার জন্য পানির ভূমিকা অনেক। পানির অপর নাম জীবন। জীবজন্তু ও পশুপাখি সবার জন্য পানি প্রয়োজন। গাছপালার জন্যও পানি লাগে। তাছাড়া, কৃষিকাজের জন্যও পানি প্রয়োজন।’
প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, ‘বিশুদ্ধ পানি কিভাবে সংরক্ষণ করা যায় সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। বিশ্বের ১০০ কোটি মানুষ সুপেয় পানি পায় না। পানির জন্য অনেক দেশেই হাহাকার রয়েছে। আমাদের দেশে তা নেই। ’
তিনি আরও বলেন, ‘পানিসম্পদ মন্ত্রণালয় থেকে নদীর ড্রেজিং করার কোনও পরিকল্পনা আসে না। আসে নদীর পাড় বাঁধাই, গাছ লাগানো, নদীর পাড়ে চার লেন রাস্তা এবং ক্ষতিগ্রস্তদের পুনর্বাসনের। কিন্তু রাস্তা করার জন্য আলাদা মন্ত্রণালয় রয়েছে।’
শেখ হাসিনা বলেন, ‘উন্নয়নের নামে আমরা এখন দেখি পুকুর ও খাল ভরাট করা হচ্ছে। এগুলো বন্ধ করতে হবে। এগুলো থেকে কিভাবে পানি সংরক্ষণ করা যায়, সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। আমাদের দেশের নদীগুলোর নাব্যতা রক্ষা করতে হবে। নদী আমাদের অভিশাপ না আশীর্বাদ হিসেবে ব্যবহার করতে হবে।’
প্রসঙ্গত, ‘পানির জন্য প্রকৃতি’ প্রতিপাদ্য নিয়ে জাতিসংঘ ঘোষিত বিশ্ব পানি দিবস ছিল ২২ মার্চ। কিন্তু বাংলাদেশ স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশের মর্যাদা পাওয়ায় ওইদিন সরকারি কর্মসূচি ছিল। তাই সেদিন পানি দিবস পালন করতে না পারায় আজ মঙ্গলবার (২৭ মার্চ) সরকারিভাবে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

Please Share This Post in Your Social Media

Powered by : Oline IT