‘সুপ্রিম কোর্ট বার নির্বাচনের হাওয়া উল্টানোর চেষ্টা করেছে সরকারপক্ষ’ ‘সুপ্রিম কোর্ট বার নির্বাচনের হাওয়া উল্টানোর চেষ্টা করেছে সরকারপক্ষ’ – CTG Journal

বুধবার, ২৮ অক্টোবর ২০২০, ০২:১৮ অপরাহ্ন

        English
শিরোনাম :
ইরফান ও জাহিদের বিরুদ্ধে আরও ৪ মামলা রামু-গর্জনিয়ায় পুলিশের সাথে ব্যবসায়ীদের মতবিনিময় লাখ টাকায় প্রতিদিন লাভ ১৩০০! গ্রেফতার ৩ প্রকল্পের বিরুদ্ধে মামলা হলে সঙ্গে সঙ্গে ব্যবস্থা: প্রধানমন্ত্রী বান্দরবান হবে দেশের ৬৪ জেলার মধ্যে শ্রেষ্ঠ জেলা- পার্বত্য মন্ত্রী বীর বাহাদুর কাপ্তাইয়ে বজ্রপাত প্রতিরোধে ৫ হাজার তালবীজ রোপণ কর্মসূচীর উদ্বোধন করলেন জেলা প্রশাসক কোভিড-১৯: দেশে একদিনে আরও ২০ জনের মৃত্যু সীমান্ত রক্ষার পাশাপাশি দুস্থদের জন্য কাজ করছে বিজিবি লোগাং জোন বিজিবি লোগাং জোন সীমান্ত রক্ষার পাশাপাশি দুস্থদের জন্য কাজ করছে নুরসহ ছয় জনের বিরুদ্ধে তদন্ত প্রতিবেদন ১২ নভেম্বর চট্টগ্রাম কলকাতা রুটে স্পাইস জেটের ফ্লাইট শুরু ৫ নভেম্বর নৌবাহিনীর কর্মকর্তা হত্যাচেষ্টা মামলায় আরও একজন গ্রেফতার
‘সুপ্রিম কোর্ট বার নির্বাচনের হাওয়া উল্টানোর চেষ্টা করেছে সরকারপক্ষ’

‘সুপ্রিম কোর্ট বার নির্বাচনের হাওয়া উল্টানোর চেষ্টা করেছে সরকারপক্ষ’

সরকারের পক্ষ থেকে সুপ্রিম কোর্ট বার অ্যাসোসিয়েশন নির্বাচনের হাওয়া উল্টানোর অনেক চেষ্টা করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ। তিনি বলেন, ‘নির্বাচনের হওয়া উল্টানোর জন্য সরকারের প্রভাবশালী লোকেরা চেষ্টা করেছেন। কিন্তু তারা পারেননি।’

শুক্রবার (২৩ মার্চ) জাতীয় প্রেসক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে জিয়া নাগরিক ফোরাম আয়োজিত এক প্রতিবাদ সমাবেশে এসব কথা বলেছেন মওদুদ আহমদ।

এ সময় মওদুদ আহমদ বলেন, ‘এ নির্বাচনের মাধ্যমে দেশের জনমতের প্রতিফলন ঘটেছে। মানুষ কি ভাবছে তা পরিষ্কার হয়েছে। কারণ, এখানে অবাধ সুষ্ঠু নির্বাচন হয়েছে। সবাই প্রতিযোগিতা করেছেন। একটা উৎসবের মধ্য দিয়ে নির্বাচন হয়েছে।’

সুপ্রিম কোর্ট বার অ্যাসোসিয়েশনের নির্বাচনে কোথাও কোনও করচুপি হয়নি দাবি করে মওদুদ আহমদ বলেন, ‘আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন যদি এমন উৎসবপূর্ণ ও সুষ্ঠু হয় তাহলে বিএনপির সঙ্গে আওয়ামী লীগের ভোটের অনুপাত হবে ৭৫ ও ২৫ শতাংশ। এটাই বাস্তবতা। সরকার ২৫ শতাংশের বেশি ভোট পাবে না।’

সরকার ২০১৩ সালের ৫ জানুয়ারির মতো আরেকটি নির্বাচনের দিবাস্বপ্ন দেখছে বলে মন্তব্য করে তিনি আরও বলেন, ‘তবে তাদের সেই স্বপ্ন বাস্তবায়ন হবে না। সব কিছুর একটা লিমিট আছে। এই সরকার সেই সীমা পেরিয়ে গেছে। আগামী মাস আমাদের জন্য পরীক্ষার মাস। এখনও শান্তিপূর্ণ আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছি। সরকার যদি সমঝোতায় না আসে, তাহলে একটা সময় আসবে যখন রাজপথ ছাড়া আর কোনও উপায় থাকবে না।’

স্বল্পোন্নত দেশের তালিকা থেকে উন্নয়নশীল দেশে উন্নীত হওয়ার বিষয়ে মওদুদ আহমদ বলেন, ‘যেখানে দেশে গণতন্ত্র নেই, সেখানে মানুষের কাছে উন্নয়নশীলতার কোনও অর্থ নেই। আর এই উন্নয়নশীল হওয়ার পেছনে কোনও একক সরকারের কৃতিত্ব নেই। আমরা ক্ষমতায় থাকলে আরও ৭-৮ বছর আগেই উন্নয়নশীল হতো বাংলাদেশ। আওয়ামী লীগের দুঃশাসন ও দুর্নীতির কারণে এটি দেরিতে হয়েছে।’

জাতীয় প্রেসক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে আয়োজিত এ প্রতিবাদ সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন জিয়া নাগরিক ফোরামের সভাপতি লায়ন মিয়া মোহাম্মদ আনোয়ার, সঞ্চালনা করেছেন সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক কেএ জামান।

Please Share This Post in Your Social Media

Powered by : Oline IT