নৌবাহিনী কর্মকর্তাকে মারধর: হাজী সেলিমের ছেলে গ্রেপ্তার নৌবাহিনী কর্মকর্তাকে মারধর: হাজী সেলিমের ছেলে গ্রেপ্তার – CTG Journal

শনিবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২০, ০৬:০৬ পূর্বাহ্ন

        English
নৌবাহিনী কর্মকর্তাকে মারধর: হাজী সেলিমের ছেলে গ্রেপ্তার

নৌবাহিনী কর্মকর্তাকে মারধর: হাজী সেলিমের ছেলে গ্রেপ্তার

সোমবার দুপুরে হাজী সেলিমের বাসভবন মদিনা টাওয়ারে অভিযান চালিয়ে ইরফানকে গ্রেপ্তার করা হয় বলে র‍্যাবের এক কর্মকর্তা দ্য বিজনেস স্ট্যান্ডার্ডকে জানিয়েছেন।

রাজধানীর ধানমণ্ডি এলাকায় সাংসদ হাজী সেলিমের গাড়ি থেকে নেমে নৌবাহিনীর এক কর্মকর্তাকে মারধরের ঘটনায় হাজী সেলিমের ছেলে ইরফান সেলিমকে গ্রেপ্তার করেছে র‍্যাব।

সোমবার দুপুরে হাজী সেলিমের বাসভবন মদিনা টাওয়ারে অভিযান চালিয়ে ইরফানকে গ্রেপ্তার করা হয় বলে র‍্যাবের এক কর্মকর্তা দ্য বিজনেস স্ট্যান্ডার্ডকে জানিয়েছেন।

রোববার রাতে নৌবাহিনীর লেফটেন্যান্ট মো. ওয়াসিফ আহমেদ খানকে মারধরের ঘটনায় সোমবার ধানমণ্ডি থানায় মামলা দায়ের করেন তিনি।

মামলায় হাজী সেলিমের ছেলে ইরফান সেলিম, প্রোটকল অফিসার এবি সিদ্দিক দিপু, মোহাম্মদ জাহিদ ও মিজানুর রহমানের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত পরিচয় আরও তিনজনকে আসামি করা হয়েছে।

র‍্যাব জানিয়েছে, মামলা দায়েরের পর থেকেই ইরফান সেলিম ও অন্য আসামিদের খুঁজতে থাকে তারা।

মামলার এজাহারে বলা হয়েছে, এরফানের গাড়ি ওয়াসিফকে ধাক্কা মারার পর তিনি সড়কের পাশে মোটরসাইকেলটি থামিয়ে গাড়ির সামনে দাঁড়ান এবং নিজের পরিচয় দেন। তখন গাড়ি থেকে আসামিরা একসঙ্গে বলতে থাকেন, ‘তোর নৌবাহিনী/সেনাবাহিনী বের করতেছি, তোর লেফটেন্যান্ট/ক্যাপ্টেন বের করতেছি। তোকে এখনি মেরে ফেলব’ বলে কিল-ঘুষি মারেন এবং আমার স্ত্রীকে অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ করেন।’

সেখানে আরও বলা হয় ‘তারা আমাকে মারধর করে রক্তাক্ত অবস্থায় ফেলে যায়। পরে আমার স্ত্রী, স্থানীয় জনতা এবং পাশে ডিউটিরত ধানমন্ডি থানার ট্রাফিক পুলিশ কর্মকর্তা আমাকে উদ্ধার করে আনোয়ার খান মডেল হাসপাতালে নিয়ে যায়।’

Please Share This Post in Your Social Media

Powered by : Oline IT