ফাঁদে ফেলে ১৩ বছর ধরে ধর্ষণের অভিযোগ ফাঁদে ফেলে ১৩ বছর ধরে ধর্ষণের অভিযোগ – CTG Journal

শনিবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২০, ০৫:৩৯ পূর্বাহ্ন

        English
ফাঁদে ফেলে ১৩ বছর ধরে ধর্ষণের অভিযোগ

ফাঁদে ফেলে ১৩ বছর ধরে ধর্ষণের অভিযোগ

গাজীপুরের কালীগঞ্জ উপজেলার খৈকড়া এলাকার এক গৃহবধূকে জায়গা কিনে দেওয়ার কথা বলে ৭ লাখ টাকা নিয়ে জিম্মি করে ১৩ বছর ধরে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। গৃহবধূর একমাত্র সন্তানকে হত্যা ও ধর্ষণের ভিডিও প্রকাশ করার ভয় দেখিয়ে অভিযুক্ত ফারুক (৪৫) ধর্ষণ করে আসছিল বলে অভিযোগ করা হয়।

শুক্রবার (২৩ অক্টোবর) কালীগঞ্জ থানার থানার পরিদর্শক (অপারেশন) মোজাম্মেল হক বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, এই ঘটনায় অভিযুক্ত গাজীপুরের কালীগঞ্জের খৈকড়া এলাকার মৃত ফজর আলীর ছেলে ফারুকের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। তাতে গ্রেফতারে চেষ্টা চলছে।

অভিযোগকারীরা জানায়, বৃহস্পতিবার (২২ অক্টোবর) সন্ধ্যা ৬টার দিকে গৃহবধূর বাড়িতে ঢুকে আবারও হত্যার হুমকি দিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণের চেষ্টা করে ফারুক। এদিন গৃহবধূর ছেলে বাড়িতে ছিল। সে বিষয়টির প্রতিবাদ এবং চিৎকার করলে চার দিনের মধ্যে গৃহবধূক এবং তার সন্তানকে গলাকেটে হত্যার হুমকি দিয়ে পালিয়ে যায় ফারুক।

ওই গৃহবধূর ছেলে তার নিজস্ব ফেসবুক আইডিতে ঘটনার বিস্তারিত বিবরণ দিয়ে সংশ্লিষ্টদের কাছে বিচার দাবি করে। ওই ছেলে জানান, তার মা ও সে হত্যার ঝুঁকিতে রয়েছেন। সে ঢাকার একটি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের ছাত্র।

অভিযোগে জানা গেছে, ওই গ্রামের গৃহবধূর স্বামী ১৯৯৫ সাল থেকে কর্মসূত্রে দেশের বাইরে অবস্থান করছে। বছর তিন পর পর কিছুদিনের জন্য দেশে আসতেন। ২০০৭ সালের দিকে তিনি রাজধানীতে জমি কিনে দেওয়ার জন্য গৃহবধূর কাছ থেকে সাত লাখ টাকা নেন। বাবার বাড়ি থেকে এবং সুদে সংগ্রহ করে টাকাগুলো অভিযুক্ত ফারুককে দেওয়া হয়। এরপর জমি কিনে দেওয়ার প্রতিশ্রুতিতে ফারুক বিভিন্ন সময় কুপ্রস্তাব দিতে থাকে। এক পর্যায়ে ছেলেকে হত্যা, টাকা ফেরত না দেওয়া এবং ভিডিও ভাইরাল করার ভয় দেখিয়ে জোরপূবর্ক ধর্ষণ করে।

কালীগঞ্জ থানার থানার পরিদর্শক (অপারেশন) মোজাম্মেল হক জানান, মামলা রুজু হয়েছে। মামলার বিষয়ে তদন্ত চলছে। গৃহবধূর স্বাস্থ্য পরীক্ষা প্রক্রিয়াধীন। পরিবারের নিরাপত্তা দিতে অভিযুক্তকে গ্রেফতারের তৎপরতা অব্যাহত রয়েছে।

Please Share This Post in Your Social Media

Powered by : Oline IT