এই ঈদে নেই ইত্যাদি ও আনন্দমেলা এই ঈদে নেই ইত্যাদি ও আনন্দমেলা – CTG Journal

মঙ্গলবার, ২৬ মে ২০২০, ১০:৪৫ অপরাহ্ন

        English
শিরোনাম :
খালেদা জিয়ার সঙ্গে মান্নার সাক্ষাৎ ২৪ ঘণ্টায় ১১টি ল্যাবে করোনা পরীক্ষা হয়নি মোবাইল ব্যাংকিংয়ে ঈদের সালামি মানিকছড়িতে রসালো ফলের বাম্পার ফলন, বাজারজাত সুবিধা না থাকায় নষ্ট হচ্ছে লিচুর বাহার যেসব অনলাইন বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশন করে তারা রেজিস্ট্রেশন পাবে: তথ্যমন্ত্রী ভ্যাট রিটার্ন দেওয়া যাবে ৯ জুন পর্যন্ত মানিকছড়িতে ‘করোনা’ উপসর্গ নিয়ে গার্মেন্টস কর্মীর মৃত্যু স্বচ্ছতা আনতে খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির চালের বস্তায় স্টেনসিল কোলাহল শূন্য চট্টগ্রামের ঈদ বিনোদন কেন্দ্র কাপ্তাইয়ে প্রধানমন্ত্রীর মানবিক সহায়তা পাচ্ছে ৬২৫০ জন ‘বারবার আমরা বলেছি, ত্রাণ দিতে হবে না ভালো একটা বাঁধ করে দেন’ একদিনে আরও ২১ জনের মৃত্যু, আক্রান্ত ১১৬৩
এই ঈদে নেই ইত্যাদি ও আনন্দমেলা

এই ঈদে নেই ইত্যাদি ও আনন্দমেলা

গত ৩১ বছরে প্রথমবারের মতো ইত্যাদি বন্ধ রাখতে হচ্ছে। এটা ইত্যাদির জন্য একটা রেকর্ড।খ্যাতিমান উপস্থাপক হানিফ সংকেতের গ্রন্থনা, পরিকল্পনা ও পরিচালনায় জনপ্রিয় ম্যাগাজিন অনুষ্ঠান ইত্যাদি প্রতি ঈদে নিয়মিত প্রচার হলেও এবার হচ্ছে না। ফাইল ফটো

করোনাভাইরাস পরিস্থিতির কারণে এবার ঈদে প্রচারিত হচ্ছে না জনপ্রিয় দুটি ম্যাগাজিন অনুষ্ঠান ইত্যাদি ও আনন্দমেলা। দুটি অনুষ্ঠানই প্রচারিত হয় বাংলাদেশ টেলিভিশনে। এবার প্রচার না হওয়ার খবর নিশ্চিত করেছেন অনুষ্ঠান সংশ্লিষ্টরা।

ইত্যাদির রেকর্ড

প্রায় ৩২ বছর ধরে টানা প্রচারিত হচ্ছে জনপ্রিয় ম্যাগাজিন অনুষ্ঠান ইত্যাদি। খ্যাতিমান উপস্থাপক হানিফ সংকেতের গ্রন্থনা, পরিকল্পনা ও পরিচালনায় নিয়মিতভাবে এটি প্রচার হয়। এই অনুষ্ঠানের মাধ্যমে অনেক সংগীতশিল্পী, অভিনয়শিল্পী উঠে এসেছেন। ব্যতিক্রমধর্মী আয়োজনের কারণে সবার কাছে জনপ্রিয় এই অনুষ্ঠান।

বছরের প্রতি তিন মাস পরপর প্রচারিত হয় অনুষ্ঠান। তবে ঈদুল ফিতরে ব্যতিক্রম। ঈদের পরদিন বিটিভিতে প্রচারিত হয় এটি। কিন্তু গত ৩২ বছরের নিয়মিত ঘটনার ব্যতিক্রম ঘটছে এবার। প্রস্তুতি শুরু করেও শেষ অবধি নির্মাণ করা যাচ্ছে না এবারের ইত্যাদি।

হানিফ সংকেত জানান, ঈদুল ফিতরের ইত্যাদি বরাবরই একটু ব্যতিক্রম হয়। বড় আয়োজন করা হয়। গত কয়েক বছর ধরে মিরপুরের ইনডোর স্টেডিয়ামেই ধারণ করা হয়েছে ঈদের ইত্যাদি। কিন্তু দুঃখজনক হলেও সত্যি, এ বছর আমরা সেই আয়োজন করতে পারছি না। তাই গত ৩১ বছরে প্রথমবারের মতো ইত্যাদি বন্ধ রাখতে হচ্ছে। এটা ইত্যাদির জন্য একটা রেকর্ড।

ঈদুল ফিতরের আয়োজনের জন্য অনেক আগে থেকেই ইত্যাদির প্রস্তুতি নেওয়া হয়। এবারও নেওয়া হয়েছিল। পরিকল্পনা অনুযায়ী সবার সঙ্গে যোগাযোগও করা হয়েছিল। বিদেশিদের নিয়ে সেগমেন্টের কিছু অংশ ধারণও করা হয়েছিল। কিন্তু শেষ করা যায়নি। এরইমধ্যে বিদেশিরা নিজ নিজ দেশে চলেও গেছেন। আর দেশেও সবকিছু বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

হানিফ সংকেত বলেন, একটা ইত্যাদি আয়োজন করতে অনেক মানুষের সমাগম ঘটে। দর্শক ছাড়াও টেকনিক্যাল পারসন, শিল্পী-কলাকুশলীরা থাকেন। এই অবস্থায় এত মানুষের সমাগম করে কোনোভাবেই ইত্যাদি ধারণ করা সম্ভব নয়।

তবে করোনাল পার হয়ে গেলে আবার সুবিধাজনক সময়ে অনুষ্ঠানটি ধারণ করা হবে। সেটা নতুন কোনো জায়গায়। 

হানিফ সংকেত আরও বলেন, আশা করছি খুব দ্রুত আমরা এই সময়টা কাটিয়ে উঠব। আবার আমাদের সবকিছু স্বাভাবিক হবে।আনন্দমেলার একটি পুরনো পর্বের অংশবিশেষ। ফাইল ফটো

প্রচার হচ্ছে না আনন্দমেলা

বিটিভির নিজস্ব প্রযোজনায় প্রতি বছর ঈদের দিন প্রচারের জন্য নির্মিত হয় ম্যাগাজিন অনুষ্ঠান আনন্দমেলা। এতে নাচ, গানসহ সমসাময়িক বিষয় নিয়ে প্যারোডি রাখা হয়। বিটিভির জন্মলগ্ন থেকেই অনুষ্ঠানটি প্রচারিত হয়ে আসছে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা।

কিন্তু এবার করোনাকালে নতুন করে ধারণ করা হয়নি এই অনুষ্ঠান। তাই এ বছর নতুন কোনো আনন্দমেলা প্রচার হচ্ছে না বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ টেলিভিশনের জেনারেল ম্যানেজার নাসির মাহমুদ।

তিনি বলেন, আনন্দমেলা আমাদের স্টুডিওতে ধারণ করা হয়। এখানে অনেক লোকের সমাগম ঘটে। এবার সেই সুযোগ নেই। তাই আপাতত বন্ধ রাখা হয়েছে।

তবে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, পুরনো তিনটি আনন্দমেলা সংকলিত আকারে পুনঃপ্রচার হতে পারে এবার। সেভাবেই তিনজন প্রযোজককে প্রস্তুতি নিতে বলা হয়েছে।

অবশ্য নাসির মাহমুদ জানান, আমাদের এটা সরকারি টেলিভিশন। তাই যেকোনো সময় যেকোনো নির্দেশনা আসতে পারে। সেজন্য আনন্দমেলা এবার প্রচারিত হবে না- এটা এখনই বলা যাচ্ছে না। আপাতত সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে, অনুষ্ঠানটি প্রচার হচ্ছে না।

Please Share This Post in Your Social Media

Powered by : Oline IT