১৬ হাজার নিবন্ধনধারীকে ১৫ দিনের মধ্যে এমপিওভুক্ত পদে নিয়োগের নির্দেশ - CTG Journal ১৬ হাজার নিবন্ধনধারীকে ১৫ দিনের মধ্যে এমপিওভুক্ত পদে নিয়োগের নির্দেশ - CTG Journal

বুধবার, ২১ এপ্রিল ২০২১, ০৮:৩৪ পূর্বাহ্ন

        English
শিরোনাম :
কাদের মির্জার ভাই ও ছেলেসহ ৩৫ জনের বিরুদ্ধে মামলা ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় হেফাজতের তাণ্ডব: আরও ৭ গ্রেফতার সমঝোতা নয় হেফাজতকে শক্তভাবে দমনের দাবি লকডাউনে ‘বিশেষ বিবেচনায়’ চলবে অভ্যন্তরীণ ফ্লাইট লোহাগাড়ায় একদিনেই ৩৩ জনকে জরিমানা তথ্যপ্রযুক্তি আইনে নুরের বিরুদ্ধে মামলার প্রতিবেদন ৬ জুন সালথা তাণ্ডব: সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান গ্রেফতার বাঁশখালীতে ‘শ্রমিকরাই শ্রমিকদের গুলি করে হত্যা করেছে’! প্রাথমিক শিক্ষকদের আইডি কার্ড দেওয়ার আশ্বাস ‘নারী চিকিৎসকের প্রতি পুলিশ-ম্যাজিস্ট্রেটের অসৌজন্যমূলক আচরণ দেখা যায়নি’ চুয়েটে ভর্তি পরীক্ষার আবেদন ২৪ এপ্রিল মিকনকে ক্রসফায়ারে দেওয়া হবে: কাদের মির্জা
১৬ হাজার নিবন্ধনধারীকে ১৫ দিনের মধ্যে এমপিওভুক্ত পদে নিয়োগের নির্দেশ

১৬ হাজার নিবন্ধনধারীকে ১৫ দিনের মধ্যে এমপিওভুক্ত পদে নিয়োগের নির্দেশ

বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষের (এনটিআরসি) নিবন্ধনধারীদের এমপিওভুক্ত বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে নিয়োগের সুপারিশ করতে নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। আদালতের নির্দেশ পাওয়ার ১৫ দিনের মধ্যে এনটিআরসি’র চেয়ারম্যানকে এ নির্দেশ বাস্তবায়ন করতে বলা হয়েছে। একইসঙ্গে নিবন্ধনধারীদের নিয়োগের বিষয়ে হাইকোর্টের রায় যথাযথভাবে বাস্তবায়ন করতে বলেছেন আদালত। এর ফলে ১৬ হাজার নিবন্ধনধারী নিয়োগের সুযোগ পাবেন।

সোমবার (৮ মার্চ) বিচারপতি মামনুন রহমান ও বিচারপতি খিজির হায়াতের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এই আদেশ দেন। আদালতে আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট মো. খুরশীদ আলম খান, অ্যাডভোকেট ছিদ্দিক উল্লাহ মিয়া ও ব্যারিস্টার মহিউদ্দিন হানিফ।

পরে অ্যাডভোকেট মো. খুরশীদ আলম খান বাংলা ট্রিবিউনকে জানান, মূলত হাইকোর্টের পূর্বের রায় বাস্তবায়ন না করায় আদালত অবমাননার মামলার শুনানি নিয়ে এসব আদেশ দেওয়া হয়েছে। 

প্রসঙ্গত, গত ১৫ ডিসেম্বর বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষের (এনটিআরসিএ) শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে শিক্ষক নিয়োগে বিজ্ঞপ্তির ওপর নিষেধাজ্ঞা দেন হাইকোর্ট। এই সময়ে আদালত অবমাননার বিষয় নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত তারা কোনও শিক্ষক নিয়োগ বিষয়ে কোনও বিজ্ঞপ্তি দিতে পারবে না বলেও আদেশ দেওয়া হয়।

২০১৭ সালের ১৪ ডিসেম্বর হাইকোর্ট একটি রায় দেন। ওই রায়ে কয়েক দফা নির্দেশনা দেওয়া হয়। তার মধ্যে সম্মিলিত মেধা তালিকা অনুযায়ী রিট আবেদনকারী এবং অন্যান্য আবেদনকারীদের নামে সনদ জারি করতে নির্দেশ দেওয়া হয়। প্রায় ১৬ হাজার নিবন্ধনধারী ওই রিট করেন। 

Please Share This Post in Your Social Media

Powered by : Oline IT