১৩১ ইউপি ও ৯ পৌরসভার ভোটগ্রহণ চলছে - CTG Journal ১৩১ ইউপি ও ৯ পৌরসভার ভোটগ্রহণ চলছে - CTG Journal

বুধবার, ২১ এপ্রিল ২০২১, ০৭:০৬ পূর্বাহ্ন

        English
শিরোনাম :
কাদের মির্জার ভাই ও ছেলেসহ ৩৫ জনের বিরুদ্ধে মামলা ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় হেফাজতের তাণ্ডব: আরও ৭ গ্রেফতার সমঝোতা নয় হেফাজতকে শক্তভাবে দমনের দাবি লকডাউনে ‘বিশেষ বিবেচনায়’ চলবে অভ্যন্তরীণ ফ্লাইট লোহাগাড়ায় একদিনেই ৩৩ জনকে জরিমানা তথ্যপ্রযুক্তি আইনে নুরের বিরুদ্ধে মামলার প্রতিবেদন ৬ জুন সালথা তাণ্ডব: সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান গ্রেফতার বাঁশখালীতে ‘শ্রমিকরাই শ্রমিকদের গুলি করে হত্যা করেছে’! প্রাথমিক শিক্ষকদের আইডি কার্ড দেওয়ার আশ্বাস ‘নারী চিকিৎসকের প্রতি পুলিশ-ম্যাজিস্ট্রেটের অসৌজন্যমূলক আচরণ দেখা যায়নি’ চুয়েটে ভর্তি পরীক্ষার আবেদন ২৪ এপ্রিল মিকনকে ক্রসফায়ারে দেওয়া হবে: কাদের মির্জা
১৩১ ইউপি ও ৯ পৌরসভার ভোটগ্রহণ চলছে

১৩১ ইউপি ও ৯ পৌরসভার ভোটগ্রহণ চলছে

দেশের ১৩১টি ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) ও ৯টি পৌরসভাসহ চট্টগ্রাম ও খুলনা সিটি কর্পোরেশনের ২টি ওয়ার্ড এবং একটি উপজেলায় উৎসবমুখর পরিবেশে ভোটগ্রহণ চলছে।

আজ সকাল ৮টা থেকে অবাধ, সুষ্ঠু, শান্তিপূর্ণ ও সুশৃঙ্খল পরিবেশে ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে। বিকেল ৪টা পর্যন্ত একটানা ভোটগ্রহণ চলবে।

ভোটগ্রহণ উপলক্ষে এসব এলাকায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর পর্যাপ্ত সদস্য নিয়োগসহ ব্যাপক প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।

ইসি সচিবালয়ের যুগ্মসচিব এস এম আসাদুজ্জামান জানান, ‘বিভিন্ন স্থানে স্থানীয় সরকারের ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি), পৌরসভা, সিটি কর্পোরেশনের সাধারণ ওয়ার্ড ও উপজেলায় সাধারণ ও উপ-নির্বাচনে শান্তিপূর্ণ ও সুশৃঙ্খল পরিবেশে ভোটগ্রহণ চলছে। নির্বাচনী এলাকার ভোটাররা যাতে নির্বিঘেœ ও আনন্দমুখর পরিবেশে ভোটপ্রদান করতে পারেন সে জন্য যাবতীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।’

তিনি জানান, ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন উপলক্ষে প্রতিটি ভোটকেন্দ্রে ১জন অফিসারসহ ৩ জন পুলিশ, অস্ত্রসহ ৪জন আনসার এবং অঙ্গীভূত আনসার-ভিডিপি সদস্য ১৩জনসহ সর্বমোট ২০জন নিরাপত্তা কর্মী মোতায়েন রয়েছে। প্রতি ইউনিয়নে পুলিশ, এপিবিএন, ব্যাটালিয়ান আনসারের ২টি করে মোবাইল টিম, বিজিবি ১ প্লাটুন ও র‌্যাবের ২টি করে টিম মোতায়েন রয়েছে। এছাড়া পটুয়াখালী, বরগুনা ও সন্দ্বীপের জন্য ১ প্লাটুন কোস্ট গার্ড সদস্য আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় নিয়োজিত রয়েছে। ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন উপলক্ষে আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে ৭৬ জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগ করা হয়েছে।

পৌরসভা নির্বাচন উপলক্ষে সাধারণ কেন্দ্রে ৫জন পুলিশ, অস্ত্রসহ ২জন আনসার এবং অঙ্গীভূত আনসার-ভিডিপি সদস্য ১২জনসহ সর্বমোট ১৯ জন মোতায়েন রয়েছে এবং গুরুত্বপূর্ণ কেন্দ্রে ১জন অফিসারসহ ৬জন পুলিশ, অস্ত্রসহ ২ জন আনসার এবং অঙ্গীভূত আনসার-ভিডিপি সদস্য ১২জনসহ ২০জন মোতায়েন রয়েছে। এছাড়া পুলিশ, এপিবিএন, ব্যাটালিয়ান আনসারের সমন্বয়ে মোবাইল টিম ৩২টি, স্ট্রাইকিং ফোর্স ৫টি, ১০ প্লাটুন বিজিবি ও র‌্যাবের ১৭টি টিম মোতায়েন রয়েছে। পৌরসভা নির্বাচনে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে ৩৭জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এবং ৪জন জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগ করা হয়েছে বলে তিনি জানান।

আসাদুজ্জামান জানান, উপজেলা পরিষদ নির্বাচন উপলক্ষে সাধারণ কেন্দ্রে ২জন পুলিশ, অস্ত্রসহ ২জন আনসার এবং অঙ্গীভূত আনসার-ভিডিপি সদস্য ১০জন ও ১জন গ্রাম পুলিশসহ ১৫ জন মোতায়েন রয়েছে এবং গুরুত্বপূর্ণ কেন্দ্রে ৩জন পুলিশ, অস্ত্রসহ ২ জন আনসার, এবং অঙ্গীভূত আনসার-ভিডিপি সদস্য ১০জন ও ১জন গ্রাম পুলিশসহ ১৬ জন মোতায়েন রয়েছে। এছাড়া পুলিশ, এপিবিএন ব্যাটালিয়ান আনসারের সমন্বয়ে ১০টি মোবাইল টিম, স্ট্রাইকিং ফোর্স ৩টি, ৩ প্লাটুন বিজিবি ও র‌্যাব এর ৩টি টিম মোতায়েন রয়েছে। এছাড়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ১০জন এক্সিকিউটিভ ও ১জন জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগ করা হয়েছে।

তিনি জানান, সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন উপলক্ষে সাধারণ কেন্দ্রে ৭জন পুলিশ, অস্ত্রসহ ৩জন আনসার এবং অঙ্গীভূত আনসার-ভিডিপি সদস্য ১২জনসহ ২২ জন মোতায়েন রয়েছে এবং গুরুত্বপূর্ণ কেন্দ্রে ৭জন পুলিশ, অস্ত্রসহ ৫ জন আনসার এবং অঙ্গীভূত আনসার-ভিডিপি সদস্য ১২জনসহ ২৪জন মোতায়েন রয়েছে। এছাড়া চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের ৩৬নং সাধারণ ওয়ার্ডের উপনির্বাচনে পুলিশের ৪টি ও র‌্যাবের ৩টি টিম ও খুলনা সিটি কর্পোরেশনের ৬নং সাধারণ ওয়ার্ডের উপনির্বাচনে পুলিশের ৩টি ও র‌্যাবের ২টি টিম স্ট্রাইকিং ফোর্স হিসেবে মোতায়েন রয়েছে। সিটি কর্পোরেশনের প্রতি ওয়ার্ডে ১জন করে এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগ করা হয়েছে।

কমিশন সূত্র জানায়, আজ ৪৭টি ইউপিতে সাধারণ, ৮৪ ইউপির ৯০ পদে উপ-নির্বাচন, চারটি পৌরসভায় সাধারণ, একটি পৌরসভায় মেয়র পদে ও চারটিতে সাধারণ কাউন্সিলর পদে উপ-নির্বাচন, চট্টগ্রাম ও খুলনা সিটি কর্পোরেশনের দুটি ওয়ার্ডে উপ-নির্বাচন ও একটি উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে উপ-নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

বুধবার মধ্যরাত থেকে আজ মধ্যরাত পর্যন্ত বাস, ইজিবাইক, ট্রাক, অটোরিকশা, মাইক্রোবাস, বেবিট্যাক্সি, কার, ট্যাক্সিক্যাব, জিপ, পিকআপ, টেম্পো ইত্যাদি যানবাহন চলাচলের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে।

সেইসঙ্গে ভোটগ্রহণের আগের তিনদিন থেকে আজ মধ্যরাত পর্যন্ত মোটরসাইকেল চলাচলের ওপর নিষেধাজ্ঞা কার্যকর থাকবে। তবে জরুরি সেবায় নিয়োজিত যানবাহন চলাচল নিষেধাজ্ঞার বাইরে থাকবে।

এছাড়া বুধবার দিবাগত মধ্যরাত ১২টা থেকে আজ মধ্যরাত ১২টা পর্যন্ত লঞ্চ, ইঞ্জিন চালিত সব ধরনের নৌযান ও স্পিটবোট চলাচলে নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। তবে জনগণ বা ভোটারদের চলাচলের জন্য ক্ষুদ্র নৌযান চলাচল নিষেধাজ্ঞার বাইরে থাকবে।

Please Share This Post in Your Social Media

Powered by : Oline IT