স্বাস্থ্যবিধি মানুন, নিজে বাঁচুন দেশটাকে বাঁচান: পুলিশ সদর দফতর - CTG Journal স্বাস্থ্যবিধি মানুন, নিজে বাঁচুন দেশটাকে বাঁচান: পুলিশ সদর দফতর - CTG Journal

বৃহস্পতিবার, ০৬ মে ২০২১, ১২:৪৮ অপরাহ্ন

        English
শিরোনাম :
সংক্ষিপ্ত সিলেবাস শেষ করেই এসএসসি-এইচএসসি পরীক্ষা খালেদা জিয়ার আবেদন ইতিবাচকভাবে দেখছি: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাংবাদিক সত্যজিৎ এর উপর হামলা: জড়িতদের গ্রেপ্তার ও শাস্তির দাবীতে উত্তাল খাগড়াছড়ি রাউজানে খাবার হোটেলে স্বাস্থ্য বিধি অমান্য, জরিমানা এতিমদের সম্মানে সানরাইজ ফাউন্ডেশনের ইফতার ও দোয়া রাউজানে ৪০ জন কৃষক পেল ২০ লক্ষ টাকার কৃষি ঝণ রাউজানে মসজিদ পরিচালনা কমিটি নিয়ে দ্বন্দ্ব: পলাতক আসামি গ্রেফতার ৫ লাখ ডোজ টিকা আসছে ঈদের আগে ঈদের ছুটিতে কর্মস্থলে থাকতে হবে ব্যাংক কর্মকর্তাদের লামায় ৩০০জন কর্মহীন মানুষকে প্রধানমন্ত্রীর আর্থিক উপহার প্রদান মহালছড়ি সেনা জোনের ব্যবস্থাপনায় মানবিক সহায়তা রামগড়ে হিমাগার না থাকায় নষ্ট হচ্ছে উৎপাদিত পণ্য, ন্যায্য মূল্য থেকে বঞ্চিত হচ্ছে কৃষক
স্বাস্থ্যবিধি মানুন, নিজে বাঁচুন দেশটাকে বাঁচান: পুলিশ সদর দফতর

স্বাস্থ্যবিধি মানুন, নিজে বাঁচুন দেশটাকে বাঁচান: পুলিশ সদর দফতর

করোনা সংক্রমণের বিস্তার রোধে বিধিনিষেধ মেনে চলাই সবচেয়ে কার্যকরী প্রতিরোধ বলে মনে করে পুলিশ সদর দফতর। এ জন্য বৃহস্পতিবার (২৯ এপ্রিল) সবার প্রতি আহ্বান জানানো হয়েছে—একটুখানি সাবধানতা অবলম্বন করে নিজে বাঁচুন, এই দেশটাকে বাঁচান।

পুলিশ সদর দফতর থেকে জানানো হয়, গত ১৪ এপ্রিল থেকে দেশে করোনাভাইরাসজনিত রোগ কোভিড-১৯-এর বিস্তার রোধে সার্বিক কাজ ও চলাচলে বিধিনিষেধ চলছে। ১৩তম দিনে (বৃহস্পতিবার) এসে দেখুন, সংক্রমণ কতখানি কমেছে! যারা এই বিধিনিষেধ মেনেছেন, তাদের কারণেই এই বিপর্যয় মোকাবিলা করা সম্ভব হচ্ছে।

অনেকেই চলমান বিধিনিষেধ, বাধ্যবাধকতা, কঠোরতার সীমিতকরণ নিয়ে অনেক কথা বলছেন। কিন্তু বাস্তবতা হচ্ছে—যে যা-ই বলুক না কেন, সংক্রমণ বেড়ে গেলে তা কমানোর একমাত্র কার্যকরী ও পরীক্ষিত উপায় হলো মানুষকে ঘরে রাখা। ঘরের বাইরে চলাচল নিয়ন্ত্রণ করা। যদি পরিপূর্ণভাবে মানুষের চলাচল নিয়ন্ত্রণ করা যেতো, তাহলে গ্রাফটা আরও স্বস্তিদায়ক হতো, তা নিশ্চিতভাবেই বলা যায়।

করোনার ভয়াল থাবায় আমাদের প্রতিবেশী দেশ ভারত বিপর্যস্ত। ইন্টারনেটের কল্যাণে আমরা সেসব দৃশ্য দেখতে পাচ্ছি। ইতোমধ্যে ভারতে করোনার ডাবল মিউটেশন স্টেইন ধরা পড়েছে, যা ৩০০ গুণ বেশি সংক্রামক বলে দাবি করা হচ্ছে। ঘনবসতির দেশ বাংলাদেশে করোনার সেই ধরন প্রবেশ করলে সামগ্রিকভাবে পরিস্থিতি কতটা খারাপ হতে পারে, তা সহজেই অনুমেয়।

দয়া করে বাকি দিনগুলোতে বিধিনিষেধ কঠোরভাবে মেনে চলুন। মাস্ক ব্যবহার করুন। সামাজিক দূরত্ব মেনে চলুন। স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করুন। কেবল তাহলেই অতিমারি করোনার এই প্রকোপ কমিয়ে আনা সম্ভব হবে।

আপনার একটুখানি সাবধানতা ও সচেতনতাই পারে আপনাকে, আপনার পরিবারকে, এই দেশকে সুরক্ষিত রাখতে। নিজে বাঁচুন, এই দেশটাকে বাঁচান।

Please Share This Post in Your Social Media

Powered by : Oline IT