সৈয়দ আবুল মকসুদ আর নেই - CTG Journal সৈয়দ আবুল মকসুদ আর নেই - CTG Journal

শুক্রবার, ২৫ Jun ২০২১, ০৬:২৯ অপরাহ্ন

        English
শিরোনাম :
গরিব মরলেও আ.লীগের কিছু যায় আসে না: মান্না বেগম খালেদা জিয়াকে বিদেশে উন্নত চিকিৎসার ব্যবস্থা করুন- ডা. শাহাদাত এইচএসসির ফরম পূরণ ২৯ জুন থেকে শুরু স্থিতিশীল বঙ্গোপসাগর-ভারত মহাসাগর দেখতে চায় বাংলাদেশ ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ১০৮ জনের ভূমধ্যসাগরে ভাসমান অবস্থায় ইউরোপগামী ২৬৪ বাংলাদেশি উদ্ধার স্বাস্থ্য খাতকে বদলে দিতে কোভিড-১৯ এর ৪ অবদান মাদকাসক্তদের ৮০ ভাগই কিশোর করোনা ভয়ঙ্কর/ চট্টগ্রামে ৫ মৃত্যুর সঙ্গে শনাক্তের হার ২৯ শতাংশ হাসপাতাল থেকে যেমন এসেছেন ‌‘তেমনই’ আছেন খালেদা জিয়া ডোপ টেস্টে পজিটিভ হলে সরকারি চাকরি মিলবে না: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বেসরকারি পর্যায়ে অ্যান্টিজেন পরীক্ষার অনুমোদন দিচ্ছে সরকার
সৈয়দ আবুল মকসুদ আর নেই

সৈয়দ আবুল মকসুদ আর নেই

বাংলাদেশের খ্যাতিমান কলামিস্ট, গবেষক, প্রাবন্ধিক, সাংবাদিক ও লেখক সৈয়দ আবুল মকসুদ আর নেই। আজ মঙ্গলবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় তিনি রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে মৃত্যুবরণ করেন।

স্কয়ার হাসপাতালের পরিচালক ওয়াহিউদ্দিন মাহমুদ জানান,  সন্ধ্যা ৭টার দিকে তাকে মৃত অবস্থায় হাসপাতালে আনা হয়।

তিনি আরও জানান, যখন ওনাকে আমরা পাই, ওনার মাঝে জীবনের কোন চিহ্ন ছিল না। পরে ইসিজিসহ কিছু পরীক্ষা করে নিশ্চিত করা হয়। সন্ধ্যা ৭টা ৯ মিনিটে তাকে মৃত ঘোষণা করেন স্কয়ারের ইমার্জেন্সি আবাসিক মেডিক্যাল অফিসার ডা. ফয়সাল হক।

জনপ্রিয় এই কলামিস্ট তার গবেষণাধর্মী প্রবন্ধের জন্য সুপরিচিত। তিনি ১৯৪৬ সালের ২৩ অক্টোবর মানিকগঞ্জ জেলার শিবালয় উপজেলার এলাচিপুর গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন।

সাহিত্যে সামগ্রিক অবদানের জন্য ১৯৯৫ সালে বাংলা একাডেমি পুরস্কার পান এই লেখক। এখন পর্যন্ত তার ৪০টির বেশি গ্রন্থ প্রকাশিত হয়েছে। এর মধ্যে দুটি কাব্যগ্রন্থ, একটি কাব্য সংকলন।

তিনি বিখ্যাত ব্যক্তিদের জীবনী নিয়ে গবেষণাধর্মী বই লিখেছেন। এর মধ্যে মাওলানা আব্দুল হামিদ খান ভাষানীর জীবন, কর্মকান্ড, রাজনীতি ও দর্শন,সৈয়দ ওয়ালীউল্লাহর জীবন ও সাহিত্য, ভাসানী কাহিনী, স্মৃতিতে সৈয়দ ওয়ালীউল্লাহ, গান্ধী মিশন ডায়েরি, পূর্ববঙ্গে রবীন্দ্রনাথ, বিশ্বের শ্রেষ্ঠ দশ দার্শনিক, পথিকৃৎ নারীবাদী খায়রুন্নেসা খাতুন, মোতাহের হোসেন চৌধুরী জীবন ও সাহিত্য, হরিশচন্দ্র মিত্র উল্লেখযোগ্য।

তার প্রবন্ধের বইয়ের মধ্যে যুদ্ধ ও মানুষের মূর্খতা, গান্ধী, নেহেরু ও নোয়াখালী, ঢাকার বুদ্ধদেব বসু, রবীন্দ্রনাথের ধর্মতত্ত্ব ও দর্শন, প্রভৃতি, প্রতীচ্য প্রতিভা, কাজী ইমদাদুল হক রচনাবলী, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ও বাংলাদেশে উচ্চশিক্ষা, অরণ্য বেতার, বাঙালি জাতি বাঙালি মুসলমান ও বাঙালি জাতীয়তাবাদ, রাজনীতি ও ধর্মীয় রাজনীতি, রবীন্দ্র রাজনীতি উল্লেখযোগ্য।

তিনি অসংখ্য ভ্রমণ কাহিনী লিখেছেন। এর মধ্যে ‘এ জার্নাল অব জার্মানি’ পাঠক সমাদৃত হয়। 

Please Share This Post in Your Social Media

Powered by : Oline IT