সাংবাদিক নির্যাতনের প্রতিবাদে কলম বিরতি - CTG Journal সাংবাদিক নির্যাতনের প্রতিবাদে কলম বিরতি - CTG Journal

মঙ্গলবার, ১১ মে ২০২১, ০৯:৩১ পূর্বাহ্ন

        English
শিরোনাম :
দিনে সাইকেল চুরি, রাতে ইয়াবা বিক্রি সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে তিন পরামর্শ ১৯ দিনে জামিনে মুক্ত ৩৩ হাজার কারাবন্দি ফেসবুক কি শুনতে পায়, কীভাবে নজরদারি করে? পানছড়িতে ভেস্তে যাচ্ছে এলজিইডি’র ১ কোটি ৬২ লাখ টাকার তীর রক্ষা প্রকল্প: মরে যাচ্ছে ঘাস, তীরে ধরেছে ফাটল খালেদা জিয়ার বিদেশযাত্রা নিয়ে নতুন হিসাব-নিকাশ চীনা রাষ্ট্রদূতের মন্তব্যে বিস্মিত কূটনীতিকরা বেগম খালেদা জিয়ার রোগ মুক্তি কামনায় কাপ্তাইয়ে বিএনপির দোয়া ও ইফতার মাহফিল চৈতন্য গলির জুয়ার আস্তানায় পুলিশের হানা, আটক ১৪ সীমান্ত এলাকায় ব্যাপকহারে করোনা টেস্টের নির্দেশ রাউজানে প্রতারণা ও চাঁদাবাজির অভিযোগে যুবলীগ নেতা গ্রেপ্তার বাংলাদেশ থেকে সংযুক্ত আরব আমিরাত ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা
সাংবাদিক নির্যাতনের প্রতিবাদে কলম বিরতি

সাংবাদিক নির্যাতনের প্রতিবাদে কলম বিরতি

সাংবাদিকদের সুরক্ষায় আইন প্রণয়নসহ ১৪ দফা দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরাম (বিএমএসএফ)। মঙ্গলবার (২ মার্চ) জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে ৬ ঘণ্টাব্যাপী কলম বিরতির মাধ্যমে অনুষ্ঠিত অবস্থান কর্মসূচিতে এসব দাবি জানায় সংগঠনটি।

বিএমএসএফ’র দাবিগুলোর মধ্যে রয়েছে— সারা দেশের পেশাদার সাংবাদিকদের তালিকা দ্রুত প্রণয়ন করে আইডি নম্বর প্রদান করা, সাংবাদিক নিয়োগ নীতিমালা প্রণয়ন করা, সাংবাদিক নির্যাতন বন্ধে যুগোপযোগী আইন প্রণয়ন করা, ষষ্ঠ থেকে উচ্চতর শ্রেণির পাঠ্য বইয়ে গণমাধ্যম বিষয়ক একটি অধ্যায় অন্তর্ভুক্ত করা, সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানগুলোর পিআরও পদে প্রকৃত সাংবাদিকদের নিয়োগ দেওয়া, পেশাগত কাজে সাংবাদিক নির্যাতনের শিকার ও হামলা-মামলার ব্যয়ভার সংশ্লিষ্ট গণমাধ্যমকে বহন করা,তালিকাভুক্ত সাংবাদিকদের সরকারের পক্ষ থেকে মাসিক ভাতা প্রদান করা, হরতাল ও অবরোধ চলাকালে সাংবাদিক ও সংবাদপত্র বহনকারী যানবাহন আওতামুক্ত রাখা, প্রতিটি গণমাধ্যমে সাংবাদিকদের অনুকূলে কল্যাণ ফান্ড গঠন করা, ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন সংশোধন ও তদন্তে দোষী প্রমাণিত হওয়ার আগে কোনও সাংবাদিককে পুলিশ গ্রেফতার করতে পারবে না, সাংবাদিকের বিরুদ্ধে অভিযোগ/মামলা করলে বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিলে দায়ের করা, বিটিভি, বাসস ও বাংলাদেশ বেতারে উপজেলা পর্যায়ে প্রতিনিধি নিয়াগ করা, জাতীয় ও স্থানীয় পত্রিকাগুলোকে সরকার থেকে আগের মতো প্রয়োজনীয় কাগজ বরাদ্দ দেওয়া এবং জেলা ও উপজেলা প্রতিনিধিদের সরকার ঘোষিত ওয়েজ বোর্ড অনুযায়ী বেতন-ভাতা প্রদান করা।

অবস্থান কর্মসূচি থেকে সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক আহমেদ আবু জাফর বলেন, ‘সারাদেশের সাংবাদিকদের স্বার্থে দাবি ও মর্যাদা আদায়ে আমরা মাঠে আছি। দেশের স্বাধীনতার ৫০ বছর সময়কালে সাংবাদিক সমাজ ও সাংবাদিকরা অরক্ষিত একটি জায়গায় পরিণত হয়েছে। তাদের সুরক্ষা দিতে হলে সরকারকে দ্রুত ভাবতে হবে। সাংবাদিকরা চাচ্ছে কী? সরকারের কাছে বেতন চাচ্ছি না, ভাতা চাচ্ছি না, শুধু আমাদের মর্যাদাটুকু চাচ্ছি। সাংবাদিকদের তালিকা প্রণয়ন চাচ্ছি। অশিক্ষিত, কুশিক্ষিত সাংবাদিকরা যেন এ পেশায় প্রবেশ না করতে পারে, এজন্য আমরা সাংবাদিকদের নিয়ম নীতিমালা প্রণয়নের দাবি জানিয়েছি। আমরা এই দীর্ঘ সময়ে বহু ঘটনা দেখেছি। সাংবাদিকদের সঙ্গে ঘটে যাওয়া ঘটনাগুলো আমাদের ব্যথিত করে। আমাদের হৃদয়ে রক্তক্ষরণ হয়।’

অবস্থান কর্মসূচিতে আরও উপস্থিত ছিলেন— সংগঠনটির সহ-সভাপতি সাঈদুর রহমান রিমন, ড. সাজ্জাদ চিশতী,যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক এমএ আকরাম প্রমুখ।

Please Share This Post in Your Social Media

Powered by : Oline IT