রাউজানে ‘এমবিবিএস ডাক্তার’ আটক - CTG Journal রাউজানে ‘এমবিবিএস ডাক্তার’ আটক - CTG Journal

মঙ্গলবার, ০৯ মার্চ ২০২১, ১২:৫৯ পূর্বাহ্ন

        English
শিরোনাম :
অবৈধ বাংলাদেশিদের চাকরির বিষয়ে বিবেচনা করছে সৌদি আরব শিক্ষার্থীদের টিউশন ফি দেবে সরকার, আবেদনের নির্দেশ ঢাবিতে ভর্তির আবেদনপত্র জমা শুরু, পরীক্ষা ২১ মে থেকে ধর্ষণ ও যৌন হয়রানির শিকার নারীর ছবি ও পরিচয় প্রকাশে নিষেধাজ্ঞা চট্টগ্রামে হত্যা মামলায় ৯ জনের ফাঁসি অদম্য মনোবল ও ইচ্ছা শক্তিতে ওরা আজ মানিকছড়ি’র সফল নারী উদ্যোক্তা ঢাকায় পরিকল্পনা করে জেলায় জেলায় সংঘবদ্ধ চুরি বায়েজিদে ইমন হত্যায় ৬ জন আটক রামগড়ে পরিকল্পিত পরিবার গঠন বিষয়ে উদ্বুদ্ধকরণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত গুমোট গরম, শিলাবৃষ্টির শঙ্কা অধিকারটা আদায় করে নিতে হবে: প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশে মহামারির এক বছর: প্রাণ গেল ৮ হাজার ৪৭৬ জনের
রাউজানে ‘এমবিবিএস ডাক্তার’ আটক

রাউজানে ‘এমবিবিএস ডাক্তার’ আটক

চিকিৎসা সেবা দানের উপযোগী কোনো ধরনের সার্টিফিকেট না থাকলেও চেম্বার সাজিয়ে, এমবিবিএস ডাক্তার পরিচয়ে সাইনবোর্ড লাগিয়ে দীর্ঘদিন ধরে চিকিৎসা সেবার নামে প্রতারণা করে আসা এক প্রতারককে আটক করেছে পুলিশ।

সোমবার (১৮ জানুয়ারি) বিকেল ৪টায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান পরিচালনা করে উপজেলার নোয়াপাড়া পথের হাটস্থ স্কুল মার্কেটের চেম্বার থেকে তাকে আটক করা হয়।

এমবিবিএস ডাক্তার পরিচদানকারী ওই প্রতারকের নাম মো. জাহাঙ্গীর আলম (৪৫)। তিনি উপজেলার নোয়াপাড়া ইউনিয়নের ৪নম্বর ওয়ার্ডের মৃত আবুল কাশেম ওরফে মেরুর ছেলে।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, প্রতারক জাহাঙ্গীর আলম নোয়াপাড়া পথের হাটেরস্কুল মার্কেটে নিজকে এমবিবিএস, পিজিটি (শিশু মেডিসিন ও সার্জারী) লিখে দীর্ঘদিন ধরে মানুষের চিকিৎসা দিয়ে আসছিলেন। এলাকার জনসাধারণের কাছ থেকে এ অভিযোগ পেয়ে চেম্বারে অভিযান চালিয়ে প্যাড ও ভিজিটিং কার্ডসহ এমবিবিএস ডাক্তার পরিচয় সম্বলিত বিভিন্ন আলামতের প্রমাণ পায় পুলিশ। 

চিকিৎসা নিতে আসা নোয়াপাড়া ইউনিয়নের মোকামী পাড়া এলাকার জাহানারা বেগম বলেন, ‘জাহাঙ্গীর আলম এমবিবিএস চিকিৎসক পরিচয় দেওয়ায় আমি তার কাছে চিকিৎসা করি, তিনি আমার কাছ থেকে ৪শ টাকা ফি নেন। এর আগে আরও অনেকবার দেখিয়েছি। আজ (সোমবার) আসতে বলেছেন তাই এসেছি।’

সহকারী পুলিশ সুপার (রাউজান-রাঙ্গুনিয়া) আনোয়ার হোসেন শামীম বলেন, ‘গোপন সংবাদের ভিত্তিতে এমবিবিএস ডাক্তার পরিচয়ে চিকিৎসার অভিযোগ পেয়ে অভিযান চালিয়ে তাকে আটক করা হয়। আটক এ প্রতারকের বিরুদ্ধে মামলার প্রস্তুতি চলছে।’

রাউজান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবদুল্লাহ আল হারুন বলেন, ‘গোপন সংবাদের ভিত্তিতে একদল পুলিশ অভিযান চালিয়ে তাকে আটক করা হয়। এর আগে উপজেলা প্রশাসন অর্থদণ্ড ও কারাদণ্ড দিয়েছিলেন তাকে। জেল থেকে বের হয়ে আবারো চিকিৎসা শুরু করেন। তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।’ মামলা পক্রিয়াধীন বলেও জানান ওসি।

Please Share This Post in Your Social Media

Powered by : Oline IT