শুক্রবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৭:১০ অপরাহ্ন

        English
শিরোনাম :
রোহিঙ্গা ও আটকে পড়া পাকিস্তানিরা বাংলাদেশের বোঝা: প্রধানমন্ত্রী নির্বাচনিসহ মাধ্যমিকের বার্ষিক পরীক্ষার সূচি প্রকাশ দুই ডোজ টিকা নিয়েছেন ১ কোটি ৮২ লাখ মানুষ পরমাণু শক্তি আমরা শান্তির জন্য ব্যবহার করবো: প্রধানমন্ত্রী দক্ষিণ এশিয়ায় করোনার ধাক্কা সামলানোর শীর্ষে বাংলাদেশ স্কুল শিক্ষার্থীদের শিগগিরই টিকা দেওয়া হবে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী শারদীয়া দুর্গাপুজা উপলক্ষে কাপ্তাইয়ে মন্দিরে আর্থিক সহায়তা প্রদান করলেন সেনা জোন রামগড়ে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় মেয়র নির্বাচিত হওয়ার পথে কামাল ‘করোনা পরবর্তী পরিবেশ ও জলবায়ু সহনশীল পুনরুদ্ধার পরিকল্পনা জরুরি’ ৬ ছাত্রের চুল কেটে দেওয়া শিক্ষক কারাগারে জাতীয় পার্টির নতুন মহাসচিব মুজিবুল হক চুন্নু দ্বিতীয় ধাপের ইউপি নির্বাচন ১১ নভেম্বর
মহেশখালীতে বিমান বিধ্বস্ত: ক্ষতিগ্রস্তরা পাচ্ছে ক্ষতিপূরণ

মহেশখালীতে বিমান বিধ্বস্ত: ক্ষতিগ্রস্তরা পাচ্ছে ক্ষতিপূরণ

সিটিজি জার্নাল নিউজঃ মহেশখালীতে বিমান বাহিনীর দুটি প্রশিক্ষণ বিমান বিধ্বস্তের ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্তরা ক্ষতিপূরণ পাচ্ছে। ক্ষতিগ্রস্তরা ছাড়াও উদ্ধার কাজে অংশ নেওয়া আহতদেরও ক্ষতিপূরণের তালিকায় রাখা হবে। বিমান বাহিনী এই ক্ষতিপূরণ দিচ্ছে বলে জানিয়েছেন মহেশখালী উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. আবুল কালাম আজাদ।

এরইমধ্যে অর্ধশতাধিক ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের একটি তালিকা তৈরি করা হয়েছে। গতকাল বুধবার প্রশিক্ষণ বিমানের একটি মহেশখালীর পুটিবিলা এলাকার আব্দু সাত্তার বাড়িতে এবং আরেকটি ছোট মহেশখালীর লম্বাঘোনা বাজারের পাশে মাইজপাড়া এলাকার নুরুল আলম নুরু’র পানের বরজ ও বেগুন ক্ষেতের ওপর পড়ে।

মহেশখালী উপজেলার ছোট মহেশখালী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. জিহাদ বিন আলী বলেন, ‘বিমান বাহিনীর বিধ্বস্ত প্রশিক্ষণ বিমানটি ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডেও মাইজপাড়া এলাকার নুরুল আলম নুরুর বেগুন ক্ষেত ও পানের বরজে ওপর পড়ে। এতে প্রায় দুই লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি হয়েছে। নুরুসহ ক্ষতিগ্রস্তদের একটি তালিকা তৈরি করছে বিমান বাহিনীর লোকজন। তাদের ক্ষতিপূরণ দেওয়া হবে বলে শুনেছি।’

সত্যতা নিশ্চিত করে মহেশখালী উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. আবুল কালাম আজাদ জানান, বুধবার সন্ধ্যায় বিমান বাহিনীর দুটি প্রশিক্ষণ বিমান বিধ্বস্ত হয়। এরমধ্যে একটি বিমান বিধ্বস্ত হয়ে মহেশখালী পুটিবিলার গ্রামের আব্দু সাত্তারের বাড়ির ওপর পড়ে। এতে শিশুকন্যাসহ ওই বাড়ির তিন সদস্য আহত হয়েছে। অপর একটি বিমান ছোট মহেশখালীর লম্বাঘোনা বাজারের পাশে মাইজপাড়া গ্রামের নুরুল আলম নুরুর পানের বরজ ও বেগুন ক্ষেতের ওপর পড়ে। এ কারণে বিমান বাহিনী ক্ষতিগ্রস্তদের ক্ষতিপূরণ দিচ্ছে। এরইমধ্যে তাদের তালিকা তৈরির কাজ শুরু হয়েছে।

বিমান বাহিনীর ৫০ সদস্যের একটি দল বিধ্বস্ত বিমানের ধ্বংসাবশেষ উদ্ধার অভিযান চালাচ্ছেন। বৃহস্পতিবার সকাল থেকে তারা পৃথকভাবে এ অভিযান শুরু করেছে। এ প্রতিনিধিদলকে সার্বক্ষণিক সহযোগিতা করছেন কক্সবাজার ফায়ার সার্ভিসের একটি দল।

কক্সবাজার ফায়ার সার্ভিসের ইনচার্জ সাফায়েত হোসেন জানান, ‘আজ সকাল থেকে বাংলাদেশ বিমান বাহিনীর স্কোয়াডন লিডার মেজর নাজমুলের নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধি দল উদ্ধার অভিযান চালিয়েছেন। তারা বিধ্বস্ত বিমানের ধ্বংসাবশেষ যেখানে পড়েছে ওই স্থানগুলো পরিদর্শন করে ধ্বংসাবশেষগুলো উদ্ধার করছে। বিমান বাহিনীর এই প্রতিনিধি দলকে সার্বিক সহযোগিতা করছে কক্সবাজার ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা।

উদ্ধার অভিযানে প্রতিনিধি দলের সঙ্গে থাকা মহেশখালী পৌর সভার সাবেক চেয়ারম্যান সরওয়ার আজম বলেন, ‘সকাল থেকে বিমান বাহিনীর অফিসাররা ঘটনাস্থল পরিদর্শন এবং ধ্বংসাবশেষ উদ্ধার করছে। উদ্ধার হওয়া ধ্বংসাবশেষগুলো মহেশখালী আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয় প্রঙ্গণে রাখা হচ্ছে। সেখান থেকে ঢাকায় নিয়ে যাওয়ার হবে।’

প্রসঙ্গ, বুধবার (২৭) সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টায় মহেশখালী পৌরসভার দক্ষিণ পুটিবিলার বসতবাড়ির ওপর একটি বিমান বিধ্বস্ত হয়। অপরটি বিধ্বস্ত হয়ে মাইঝপাড়া গ্রামের পানের বরজের ওপর পড়ে। এ ঘটনায় ৪ পাইলটকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে। দুর্ঘটনার সঠিক কারণ এখনও জানা যায়নি। এ বিষয়ে অনুসন্ধান ও উদ্ধার অভিযান চলছে বলে আইএসপিআর সূত্র জানিয়েছেন। ধ্বংসস্তুপে নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করেছে পুলিশ।

একে/এম

Please Share This Post in Your Social Media

Powered by : Oline IT