বিএনপির ৭ মার্চ পালনের ঘোষণাকে স্বাগত জানালেন ওবায়দুল কাদের - CTG Journal বিএনপির ৭ মার্চ পালনের ঘোষণাকে স্বাগত জানালেন ওবায়দুল কাদের - CTG Journal

মঙ্গলবার, ১১ মে ২০২১, ১০:০৭ পূর্বাহ্ন

        English
শিরোনাম :
দিনে সাইকেল চুরি, রাতে ইয়াবা বিক্রি সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে তিন পরামর্শ ১৯ দিনে জামিনে মুক্ত ৩৩ হাজার কারাবন্দি ফেসবুক কি শুনতে পায়, কীভাবে নজরদারি করে? পানছড়িতে ভেস্তে যাচ্ছে এলজিইডি’র ১ কোটি ৬২ লাখ টাকার তীর রক্ষা প্রকল্প: মরে যাচ্ছে ঘাস, তীরে ধরেছে ফাটল খালেদা জিয়ার বিদেশযাত্রা নিয়ে নতুন হিসাব-নিকাশ চীনা রাষ্ট্রদূতের মন্তব্যে বিস্মিত কূটনীতিকরা বেগম খালেদা জিয়ার রোগ মুক্তি কামনায় কাপ্তাইয়ে বিএনপির দোয়া ও ইফতার মাহফিল চৈতন্য গলির জুয়ার আস্তানায় পুলিশের হানা, আটক ১৪ সীমান্ত এলাকায় ব্যাপকহারে করোনা টেস্টের নির্দেশ রাউজানে প্রতারণা ও চাঁদাবাজির অভিযোগে যুবলীগ নেতা গ্রেপ্তার বাংলাদেশ থেকে সংযুক্ত আরব আমিরাত ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা
বিএনপির ৭ মার্চ পালনের ঘোষণাকে স্বাগত জানালেন ওবায়দুল কাদের

বিএনপির ৭ মার্চ পালনের ঘোষণাকে স্বাগত জানালেন ওবায়দুল কাদের

বিএনপির ঐতিহাসিক ৭ মার্চ পালনের সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, ‘ঐতিহাসিক ৭ মার্চকে যারা এতদিন নিষিদ্ধ করে রেখেছিল, তারাই এখন দিনটি পালন করবে। বিএনপির এ প্রচেষ্টা দেশের রাজনৈতিক পরিবেশে ইতিবাচক আবহ তৈরি করবে।’

আজ বৃহস্পতিবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) রাজধানীর কৃষিবিদ ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে শেখ রাসেল জাতীয় শিশু -কিশোর পরিষদের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর আলোচনা সভায় ভিডিও কনফারেন্সে যুক্ত হয়ে এসব কথা বলেন তিনি।

বঙ্গবন্ধু, স্বাধীনতা, বাংলাদেশ এক সূত্রে গাঁথা উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু সবার। তাঁকে মর্যাদার আসনে অভিষিক্ত করার অর্থই হচ্ছে দেশ ও স্বাধীনতার মূল্যবোধকে সম্মানিত করা। বঙ্গবন্ধু দিয়েছেন একটি স্বাধীন রাষ্ট্র, ভৌগোলিক মুক্তি। পক্ষান্তরে তারই সুযোগ্য কন্যা শেখ হাসিনা দিয়েছেন অর্থনৈতিক মুক্তি এবং  ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্তির রোল মডেল। বঙ্গবন্ধু ও শেখ হাসিনাই হবেন নতুন প্রজন্মের রোল মডেল, অনুকরণীয় আদর্শ। তাদের স্মরণ করেই এগিয়ে যেতে হবে।’

বাংলাদেশের রাজনীতিতে বঙ্গবন্ধু পরিবার সততা, মেধা ও সাহসের প্রতীক উল্লেখ করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক  বলেন, বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা বিনির্মাণে শেখ রাসেল জাতীয় শিশু-কিশোর পরিষদের সদস্যরা আগামীতে সোনার মানুষ তৈরি করবে। ২০৪১ সালের মধ্যে দেশকে একটি সমৃদ্ধ দেশে উন্নীত করতে হলে শেখ হাসিনার যে স্বপ্ন তা সফল করতে হলে শিশুদের যোগ্য নাগরিক হয়ে গড়ে উঠার আহ্বান জানান তিনি।

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, দীর্ঘদিন ইতিহাসের পায়ে শেকল পরিয়ে রাখা হয়েছিল, করা হয়েছিল বিকৃত। তাই তরুণদের দেশ ও মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস জানতে হবে। শিশুদের নানা চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করে নিজেদের তৈরি করতে হবে। আকাশ সংস্কৃতি, ইন্টারনেট থেকে ভালোটা গ্রহণ করতে হবে। মাদকসহ অন্যান্য অপরাধ থেকে দূরে থাকতে হবে।

বর্তমান বিশ্বে সেরা তিন জন রাষ্ট্রপ্রধানের একজন শেখ হাসিনা উল্লেখ করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘৭৫ পরবর্তী সময়ে বঙ্গবন্ধু পরিবারের সদস্যরা কেউ গড্ডালিকা প্রবাহে গা ভাসিয়ে দেননি। বঙ্গবন্ধুর পরিবারের কেউ হাওয়া ভবন সৃষ্টি করেননি। প্রধানমন্ত্রীর বোন এখনও লন্ডনে বাসে চলাফেরা করেন। একটি ছোট্ট চাকরি করে তিনি জীবন নির্বাহ করেছেন। প্রধানমন্ত্রীর ছেলে সজীব ওয়াজেদ জয় তরুণ বিজ্ঞানী, মেয়ে সায়মা ওয়াজেদ পুতুল অটিজম বিশেষজ্ঞ, শেখ রেহানার ছেলে রাদওয়ান মুজিব সিদ্দীক ববি জাতিসংঘের কর্মকর্তা, মেয়ে টিউলিপ ব্রিটিশ পার্লামেন্টের সদস্য এবং ছোট মেয়ে ক্যামব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী।’ এ পরিবার থেকে সবাইকে শিক্ষা নেওয়ার আহ্বান জানান ওবায়দুল কাদের।

সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান রকিবুর রহমানের সভাপতিত্বে সভায় আরও বক্তব্য রাখেন মৎস্য ও প্রাণীসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম, আওয়ামী লীগের দফতর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া, সংসদ সদস্য নজরুল ইসলাম বাবু, সিরাজুল ইসলাম মোল্লা, আনোয়ারুল আবেদিন তুহিন, সংগঠনের মহাসচিব মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী এবং সাংগঠনিক সচিব কে এম শহীদুল্লাহ।

Please Share This Post in Your Social Media

Powered by : Oline IT