বুধবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০২:৪৬ অপরাহ্ন

        English
শিরোনাম :
রোহিঙ্গা ও আটকে পড়া পাকিস্তানিরা বাংলাদেশের বোঝা: প্রধানমন্ত্রী নির্বাচনিসহ মাধ্যমিকের বার্ষিক পরীক্ষার সূচি প্রকাশ দুই ডোজ টিকা নিয়েছেন ১ কোটি ৮২ লাখ মানুষ পরমাণু শক্তি আমরা শান্তির জন্য ব্যবহার করবো: প্রধানমন্ত্রী দক্ষিণ এশিয়ায় করোনার ধাক্কা সামলানোর শীর্ষে বাংলাদেশ স্কুল শিক্ষার্থীদের শিগগিরই টিকা দেওয়া হবে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী শারদীয়া দুর্গাপুজা উপলক্ষে কাপ্তাইয়ে মন্দিরে আর্থিক সহায়তা প্রদান করলেন সেনা জোন রামগড়ে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় মেয়র নির্বাচিত হওয়ার পথে কামাল ‘করোনা পরবর্তী পরিবেশ ও জলবায়ু সহনশীল পুনরুদ্ধার পরিকল্পনা জরুরি’ ৬ ছাত্রের চুল কেটে দেওয়া শিক্ষক কারাগারে জাতীয় পার্টির নতুন মহাসচিব মুজিবুল হক চুন্নু দ্বিতীয় ধাপের ইউপি নির্বাচন ১১ নভেম্বর
বান্দরবান-চট্টগ্রাম, কক্সবাজার রুটে চালু হচ্ছে এসি বাস সার্ভিস

বান্দরবান-চট্টগ্রাম, কক্সবাজার রুটে চালু হচ্ছে এসি বাস সার্ভিস

নিজস্ব প্রতিনিধি, বান্দরবানঃ পর্যটন বান্ধব জেলা শহর গঠনে বান্দরবানে পর্যটন শিল্পের বিকাশে উন্নয়ন-সমন্বয়ন সভা হয়েছে। সোমবার সকালে প্রশাসনের উদ্যোগে জেলা প্রশাসন সম্মেলন কক্ষে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

জেলা প্রশাসক দিলীপ কুমার বণিকের সভাপতিত্বে সভায় অন্যদের মধ্যে বান্দরবান জেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক ও মেয়র মোহাম্মদ ইসলাম বেবী, সিভিল সার্জন ডা: অংসুই প্রু, সেনা জোনের উপ-অধিনায়ক মেজর আলী আহসান, সিনিয়র সহকারি পুলিশ সুপার মো: ইয়াছির আরাফাত, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শারমীন আক্তার, আবাসিক হোটেল মালিক সমিতির সভাপতি অমল কান্তি দাশ, পরিবহণ মালিক শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক সৌরভ দাশ ঝুন্টু, রেষ্টুরেন্ট মালিক সমিতির সভাপতি গিয়াস উদ্দিন’সহ পর্যটন সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ী এবং সরকারী বেসরকারী প্রতিষ্ঠানের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

সভায় সাংবাদিক মনিরুল ইসলাম মনু, বুদ্ধজ্যোতি চাকমা, মিনারুল হক, ফরিদুল আলম সুমন ও আলাউদ্দিন শাহরিয়ার অভিযোগ করে বলেন, পর্যটন শিল্পের উন্নয়নে সড়ক যোগাযোগসহ অবকাঠামোগত শতশত কোটি টাকার উন্নয়ন কাজ বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। পর্যটন বান্ধব শহর এবং যানবাহন নিশ্চিত করতে ব্যর্থ হচ্ছে প্রশাসন।

বান্দরবান, চট্টগ্রাম এবং কক্সবাজার রুটে চলাচলকারী গাড়ীগুলোর অবস্থা খুবই নাজুক। গাড়ীগুলো যাত্রী পরিবহণের উপযুক্ত নয়, পরিবহণের শ্রমিকরাও পর্যটক বান্ধব নয়। পর্যটক এবং স্থানীয়দের চলাচলের সুবিধার্থে বান্দরবান, চট্টগ্রাম এবং কক্সবাজার রুটে এসি বাস এবং বিরতিহীন বাস সার্ভিস চালু করা প্রয়োজন।

অপরদিকে, আবাসিক হোটেল নাইট হেভেন এবং সাইরু রিসোর্টের বিরুদ্ধে ভ্রমন পিপাসুদের হয়রানীর অভিযোগ তুলেছেন অতিথিসহ অংশগ্রহণকারীরা। এছাড়াও খাবার রেষ্টুরেন্ট এবং পর্যটকবাহী জীপ গুলোর বিরুদ্ধে অতিরিক্ত টাকা নেয়ার অভিযোগ উঠে আসে সভায়।

সভায় জেলা প্রশাসক দিলীপ কুমার বণিক বলেন, পর্যটন শিল্পের বিকাশে পর্যটক বান্ধব শহর গড়ে তোলতে প্রয়োজনে কঠোর হবে প্রশাসন। পর্যটক হয়রানীর অভিযোগে আবাসিক হোটেল নাইট হেভেনের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সাইরু রিসোর্টের রেষ্টুরেন্ট সকল শ্রেনীর মানুষের জন্য উন্মুক্ত রাখা হবে। পর্যটক হয়রানী বন্ধে আবাসিক হোটেল, রেষ্টুরেন্ট, পরিবহনের বিরুদ্ধে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হবে।

পর্যটকদের সুবিধার্থে আগামী ১ মাসের মধ্যে বান্দরবান-চট্টগ্রাম এবং কক্সবাজার রুটে এসি বাস সার্ভিস চালু করার জন্য পরিবহণ মালিকদের নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

পরিবহণ মালিকরা ব্যর্থ হলে বান্দরবান, চট্টগ্রাম এবং কক্সবাজার রুটে বিকল্প ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Please Share This Post in Your Social Media

Powered by : Oline IT