বন্ডে বিনিয়োগ: আবেদনের সুনির্দিষ্ট দিক নির্দেশনা দিলো কেন্দ্রীয় ব্যাংক - CTG Journal বন্ডে বিনিয়োগ: আবেদনের সুনির্দিষ্ট দিক নির্দেশনা দিলো কেন্দ্রীয় ব্যাংক - CTG Journal

বুধবার, ০৩ মার্চ ২০২১, ০১:৪৩ পূর্বাহ্ন

        English
শিরোনাম :
কারাবন্দি মুশতাকের মৃত্যু: তদন্ত কমিটির সময় বাড়লো টেলিটকসহ ৪ অপারেটরই তরঙ্গ নিলামে অংশ নিচ্ছে নিউজিল্যান্ডে এবার নিজেদের সেরা ক্রিকেট খেলবে বাংলাদেশ! নারীকে পিস্তল ঠেকিয়ে ছিনতাই: সেই তিন পুলিশ সদস্য ২ দিনের রিমান্ডে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন সংশোধনের দাবিতে সাংবাদিকদের মানববন্ধন বিএনপি এখন মুসলিম লীগ, সত্যি? বিদেশি চকলেটের প্যাকেটে ইয়াবা পাচার দুদকের তদন্ত কর্মকর্তার অনৈতিক দাবির বিরুদ্ধে হাইকোর্টে আসামিরা চসিকের বই মেলা ২৩ মার্চ থেকে আরও টিকা কেনা হবে, টাকা প্রস্তুত রাখতে বললেন প্রধানমন্ত্রী ‘রাজপথে আন্দোলনের মাধ্যমেই আওয়ামী সরকারকে উৎখাত করতে হবে’ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ৭ মার্চ পালনের নির্দেশ, পতাকা উত্তোলন বাধ্যতামূলক
বন্ডে বিনিয়োগ: আবেদনের সুনির্দিষ্ট দিক নির্দেশনা দিলো কেন্দ্রীয় ব্যাংক

বন্ডে বিনিয়োগ: আবেদনের সুনির্দিষ্ট দিক নির্দেশনা দিলো কেন্দ্রীয় ব্যাংক

নতুন নির্দেশনায় বিনিয়োগকারী ভেদে নথিপত্রের তালিকা দিয়ে দেয়া হয়েছে। সেই সাথে আবেদনপত্রের ধরণ কেমন হবে সেটিও বলে দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। 

সরকারি সিকিউরিটিজ ও বন্ডে বিনিয়োগের ক্ষেত্রে অভিন্ন আবেদন প্রক্রিয়া এবং আবেদনের সময় সংযুক্ত করা ডকুমেন্টেসের বিষয়ে সুনির্দিষ্ট নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

সোমবার কেন্দ্রীয় ব্যাংকের ডেট (Debt) ম্যানেজমেন্ট ডিপার্টমেন্ট এই নির্দেশনা দিয়েছে। ডিপার্টমেন্ট সূত্রে জানা গেছে, বন্ড ও সিকিউরিটজ মার্কেটের উন্নয়নের অংশ হিসেবে এই নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে বিনিয়োগকারীরা সরকারি সিকিউরিটিজ ও বন্ডে বিনিয়োগ করে থাকে। বিনিয়োগের জন্য আবেদেনর ক্ষেত্রে এতদিন একক নির্দেশনা ছিল না। এতে আবেদনের ধরন ভিন্ন হতো এবং আবেদনের সাথে প্রয়োজনীয় সব ধরনের নথিপত্র থাকতো না।

নতুন নির্দেশনায় বিনিয়োগকারী ভেদে নথিপত্রের তালিকা দিয়ে দেয়া হয়েছে। সেই সাথে আবেদনপত্রের ধরণ কেমন হবে সেটিও বলে দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। 

কেন্দ্রীয় ব্যাংক সূত্রে জানা যায়, নির্দেশনায় উল্লেখিত নথিপত্রসহ আবেদনপত্রগুলো ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের কাছে জমা রাখতে হবে।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের পরিদর্শনের সময় সেগুলো প্রদর্শন করতে বাধ্য থাকবে ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলো। শুধুমাত্র আবেদনের সফট কপি কেন্দ্রীয় ব্যাংকের কাছে পাঠাতে হবে।

ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানে থাকা গভরমেন্ট সিকিউরিটিজ বিনিয়োগ উন্ডোর-মাধ্যমে সরকারি সিকিউরিজ ও বন্ডে বিনিয়োগ করতে পারেন বিনিয়োগকারীরা।

এই ধরনের বিনিয়োগকারীদের বলা হয়, বিজনেস পার্টনার। তাদের হয়ে প্রাইমারী ডিলাররা (২০টি ব্যাংক) আলাদা অ্যাকাউন্ট খুলে দেয়। দেশি বিনিয়োগকারীদের পাশাপাশি বিদেশি বিনিয়োগকারীরাও সরকারি বন্ড ও সিকিউরিটিজে বিনিয়োগ করতে পারবে। বিনিয়োগের সর্বনিম্ন সীমা ১ লাখ টাকা।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের সার্কুলারে বলা হয়, ব্যক্তি গ্রাহকরা ব্যাংকের হিসাব বিবরণী, জাতীয় পরিচয়পত্র বা পাসপোর্টের ফটোকপি, ছবি, কর শনাক্তকরণ নম্বর, নমিনির ছবি ও পরিচয়পত্র জমা দিয়ে বিপি আইডি খুলতে পারবেন।

অনিবাসী বাংলাদেশিদের ক্ষেত্রে বিদেশি মুদ্রা বা স্থানীয় মুদ্রায় পরিচালিত ব্যাংক হিসাবের বিবরণীসহ অন্যান্য তথ্য দিতে হবে এবং প্রতিষ্ঠানের ক্ষেত্রে ইনকরপোরেশন সনদ ও নিবন্ধিত ঠিকানাসহ অন্যান্য প্রয়োজনীয় তথ্য দিয়ে বিপি আইডি খোলার আবেদন করা যাবে বলে সার্কুলারে উল্লেখ করা হয়।  

Please Share This Post in Your Social Media

Powered by : Oline IT