প্রশ্নপত্র ফাঁস বন্ধ করতে সাধ্যমতো চেষ্টা করছি : শিক্ষামন্ত্রী - CTG Journal প্রশ্নপত্র ফাঁস বন্ধ করতে সাধ্যমতো চেষ্টা করছি : শিক্ষামন্ত্রী - CTG Journal

সোমবার, ১৯ এপ্রিল ২০২১, ০৫:৪৩ পূর্বাহ্ন

        English
শিরোনাম :
আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর টার্গেটে আরও দুই ডজন হেফাজত নেতা আবারও চিকিৎসক দম্পতিকে জরিমানা ভার্চুয়াল কোর্টে জামিন পেয়ে কারামুক্ত ৯ হাজার আসামি লকডাউনের পঞ্চম দিনে ১০ ম্যাজিস্ট্রেটের ২৪ মামলা ওমানের সড়কে প্রাণ গেলো তিন প্রবাসীর, তারা রাঙ্গুনিয়ার বাসিন্দা একই কেন্দ্রে টিকা না নিলে সার্টিফিকেট মিলবে না মামুনুলের বিরুদ্ধে অর্ধশত মামলা, সহসাই মিলছে না মুক্তি ফিরতি ফ্লাইটের টিকিট পেতে সৌদি প্রবাসীদের বিশৃঙ্খলা সেরে ওঠা কোভিড রোগীদের জন্য কি ভ্যাকসিনের এক ডোজই যথেষ্ট? মানিকছড়িতে ভিজিডি’র চাল বিতরণ কার্যক্রম স্থগিত রাখার নির্দেশ নিরাপদ কৌশল লকডাউন: স্বাস্থ্য অধিদফতর ৩৬ লাখ পরিবারকে আর্থিক সহায়তা দেবেন প্রধানমন্ত্রী
প্রশ্নপত্র ফাঁস বন্ধ করতে সাধ্যমতো চেষ্টা করছি : শিক্ষামন্ত্রী

প্রশ্নপত্র ফাঁস বন্ধ করতে সাধ্যমতো চেষ্টা করছি : শিক্ষামন্ত্রী

শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেছেন, প্রশ্নপত্র ফাঁস বন্ধ করতে সাধ্যমতো চেষ্টা করছি। প্রশ্নফাঁস নিয়ে সত্য-মিথ্যা অনেক কথা হয়েছে। এগুলো মোকাবিলা করতে আমরা সব ধরনের ব্যবস্থা নিয়েছি। এবার প্রশ্নপত্র ফাঁসের কোনো সুযোগ নেই।

আজ সোমবার সকালে রাজধানীর সিদ্ধেশ্বরী গার্লস কলেজে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন। এ সময় শিক্ষা সচিবসহ কলেজের শিক্ষকরা উপস্থিত ছিলেন।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, পরীক্ষার্থীরা আধা ঘণ্টা আগেই পরীক্ষার হলে ঢুকেছে। আমরা ২৫ মিনিট আগে প্রশ্নপত্রের খাম খুলেছি। এরপর পরীক্ষার হলে প্রশ্ন বিতরণ করা হয়েছে। তাই প্রশ্নপত্র ফাঁস হওয়ার সম্ভাবনা নেই।

মন্ত্রী বলেন, এত কিছুর পরেও কেউ প্রশ্ন ফাঁস করলে তিনিই দায়ী থাকবেন এবং আইন অনুযায়ী কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এক প্রশ্নের উত্তরে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, এমসিকিউ তুলে দিয়ে পাবলিক পরীক্ষায় কিছু সংস্কারণ কাজ শুরু হয়েছে। এটি নিয়ে জনমত তৈরি করতে হবে। আমরা প্রাথমিক কাজ শুরু করেছি। শিক্ষাবিদ ও সংশ্লিষ্টদের নিয়ে আলাপ-আলোচনা করে সকলে সম্মতি দিলে এমসিকিউ (নৈব্যক্তিক) প্রশ্ন তুলে দেওয়া হবে।

উল্লেখ্য, এবার ১০ বোর্ডে মোট ১৩ লাখ ১১ হাজার ৪৫৭ জন পরীক্ষার্থী অংশ নিচ্ছে। ২ হাজার ৫৪১টি কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত হবে এই পরীক্ষা। পরীক্ষা শেষ হবে আগামী ১৪ মে।

আজ পরীক্ষার দিন থেকে পরীক্ষা কেন্দ্রগুলোর ২০০ গজের মধ্যে জনসাধারণের প্রবেশ নিষিদ্ধ ঘোষণা করেছে পুলিশ।

পরীক্ষা চলাকালে কেন্দ্রের ২০০ মিটারের মধ্যে মুঠোফোনসহ ইলেকট্রনিক ডিভাইস ব্যবহার নিষিদ্ধ থাকবে। এ ছাড়া পরীক্ষা শেষ না হওয়া পর্যন্ত সব ধরনের কোচিংও বন্ধ রাখার নির্দেশ রয়েছে।

Please Share This Post in Your Social Media

Powered by : Oline IT