প্রবাসীর খামারে দুর্বৃত্তের আগুন, পুড়ে মরলো ৩০টি গরু - CTG Journal প্রবাসীর খামারে দুর্বৃত্তের আগুন, পুড়ে মরলো ৩০টি গরু - CTG Journal

বুধবার, ২১ এপ্রিল ২০২১, ০৮:১২ পূর্বাহ্ন

        English
শিরোনাম :
কাদের মির্জার ভাই ও ছেলেসহ ৩৫ জনের বিরুদ্ধে মামলা ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় হেফাজতের তাণ্ডব: আরও ৭ গ্রেফতার সমঝোতা নয় হেফাজতকে শক্তভাবে দমনের দাবি লকডাউনে ‘বিশেষ বিবেচনায়’ চলবে অভ্যন্তরীণ ফ্লাইট লোহাগাড়ায় একদিনেই ৩৩ জনকে জরিমানা তথ্যপ্রযুক্তি আইনে নুরের বিরুদ্ধে মামলার প্রতিবেদন ৬ জুন সালথা তাণ্ডব: সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান গ্রেফতার বাঁশখালীতে ‘শ্রমিকরাই শ্রমিকদের গুলি করে হত্যা করেছে’! প্রাথমিক শিক্ষকদের আইডি কার্ড দেওয়ার আশ্বাস ‘নারী চিকিৎসকের প্রতি পুলিশ-ম্যাজিস্ট্রেটের অসৌজন্যমূলক আচরণ দেখা যায়নি’ চুয়েটে ভর্তি পরীক্ষার আবেদন ২৪ এপ্রিল মিকনকে ক্রসফায়ারে দেওয়া হবে: কাদের মির্জা
প্রবাসীর খামারে দুর্বৃত্তের আগুন, পুড়ে মরলো ৩০টি গরু

প্রবাসীর খামারে দুর্বৃত্তের আগুন, পুড়ে মরলো ৩০টি গরু

ঢাকার কেরানীগঞ্জে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে বাহরাইন প্রবাসী এক ব্যক্তির গরুর খামারে আগুন দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। এই আগুনে পুড়ে মারা গেছে ৩০টি গরু। বুধবার (১১এপ্রিল) ভোরবেলা দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানার বাস্তা ইউনিয়নের ধীতপুর গ্রামে এই ঘটনা ঘটে। আগুনে প্রায় ৫০ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে দাবি করেছেন খামার মালিক মো. আব্দুস ছামাদ।

মো. আব্দুস ছামাদ বলেন, ‘আমি দীর্ঘ ৩২ বছর ধরে বাহরাইনে থাকি। গত মাসের ১২ তারিখে আমি দেশে এসেছি। আজ ভোর বেলা সন্ত্রাসীরা আমার গরুর খামারে পেট্রোল দিয়ে আগুন ধরিয়ে দেয়। এসময় গরুর ডাক চিৎকারে আমি ঘরের বাইরে আসতে চাইলেও আসতে পারিনি। দুর্বৃত্তরা আমার ঘরের দরজার ছিটকিরি বাইরে থেকে লাগিয়ে দেয়। পরে আমাদের সবার আর্ত-চিৎকারে বাড়ির আশেপাশের লোকজন দ্রুত ঘটনাস্থলে এসে দরজাটি খুলে দেয়। আমরা সবাই ঘরের বাইরে এসে দেখি ৩০টি গরু পুড়ে মারা গেছে। এসময় এই খামারের পাশে আমার আরও ৩টি ঘর পুড়ে ছাই হয়ে যায়। ওই ঘরগুলোতে রাখা আমার ৩৫ মণ পেঁয়াজও পুড়ে গেছে। আগুনে আমার প্রায় ৫০ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমার গ্রামের পাশের এক সিমেন্ট ব্যবসায়ীর কাছ থেকে আমি সিমেন্ট ও বালু না কেনার কারণে তিনি কয়েক দিন আগে আমার বাড়িতে এসে আমাকে ও আমার স্ত্রীকে হুমকি দিয়ে যায়। আমার ধারণা ওই ব্যক্তির নেতৃত্বেই আমার গরুর খামারে আগুন দিয়ে গরুগুলোকে পুড়িয়ে মারা হয়েছে।’

দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানার পুলিশ উপ-পরিদর্শক মো. ফুল মিয়া ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘ঘটনাটি খুব মর্মান্তিক। তদন্ত সাপেক্ষে এই ঘটনার সঙ্গে যারা জড়িত তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

বাহরাইন প্রবাসী আব্দুস ছামাদের স্ত্রী রাবেয়া বেগম বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘আমার স্বামী দীর্ঘদিন প্রবাসে থাকায় আমি এই খামারটি তিলতিল করে গড়ে তুলেছি। আমি সর্বক্ষণিকভাবে খামারটি দেখাশোনা করি। কিন্তু পূর্বশত্রুতার জের ধরে সন্ত্রাসীরা আমাদের গরুর খামারে পেট্রোল দিয়ে আগুন ধরিয়ে ৩০টি গরুকে নির্মমভাবে পুড়িয়ে মেরে ফেলেছে। এই ঘটনায় আমরা এখন নিঃস্ব হয়ে গেছি।’

Please Share This Post in Your Social Media

Powered by : Oline IT