দুদকের মামলায় সাহেদের চার্জশিট দাখিল পেছালো ৬৫ দিন - CTG Journal দুদকের মামলায় সাহেদের চার্জশিট দাখিল পেছালো ৬৫ দিন - CTG Journal

মঙ্গলবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১:৩৬ অপরাহ্ন

        English
শিরোনাম :
মহেশখালীতে কয়লা বিদ্যুৎ প্রকল্প এলাকা পরিদর্শনে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বান্দরবানের রোয়াংছড়ি খাল থেকে লাশ উদ্ধার রামগড়ে প্রধানমন্ত্রীর ৭৫তম জন্মদিন উদযাপন পানছড়িতে শেখ হাসিনার জন্মদিনে বৃক্ষরোপন, দোয়া ও আলোচনা সভা পানছড়িতে ষষ্ঠ জাতীয় বিজ্ঞান অলিম্পিয়াড অনুষ্ঠিত পানছড়িতে উপজেলা নির্বাহি অফিসারের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন ভাঙ্গনের মুখে পানছড়ির চেঙ্গী ইউনিয়ন পরিষদ পানছড়ির উল্টাছড়ি ইউপি-র বাৎসরিক পুষ্টি পরিকল্পনা প্রণয়ন কর্মশালা অনুষ্ঠিত দীঘিনালায় বিদ্যুৎ শর্ট সার্কিটের আগুনে বসত ঘর ভস্মীভূত নোয়াখালীতে আসামি বহনকারী গাড়িতে বিস্ফোরণ পানছড়িতে কৃষি সম্প্রসারণের কৃষক প্রশিক্ষন ও সার কীট নাশকের দোকান পরিদর্শন পানছড়িতে কম্পিউটার প্রশিক্ষণ সম্পন্নকারী প্রশিক্ষণার্থীদের মধ্যে সনদপত্র বিতরণ
দুদকের মামলায় সাহেদের চার্জশিট দাখিল পেছালো ৬৫ দিন

দুদকের মামলায় সাহেদের চার্জশিট দাখিল পেছালো ৬৫ দিন

দুদকের করা মামলায় রিজেন্ট হাসপাতালের চেয়ারম্যান সাহেদসহ পাঁচ জনের বিরুদ্ধে তদন্ত প্রতিবেদন (চার্জশিট) দাখিলের তারিখ পিছিয়েছে ৬৫ দিন। রবিবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) মামলার তদন্ত কর্মকর্তা চার্জশিট দাখিলে ব্যর্থ হলে আগামী ১৯ এপ্রিল নতুন দিন ধার্য করেন আদালত।

ঢাকা মহানগর দায়রা জজ কে এম ইমরুল কায়েশের আদালত প্রতিবেদনের জন্য নতুন এই দিন ধার্য করেন। সাহেদ ছাড়া মামলার অন্য আসামিরা হলো, স্বাস্থ্য অধিদফতরের সাবেক পরিচালক আমিনুল হাসান, উপ-পরিচালক (হাসপাতাল-১) ডা. ইউনুস আলী, সহকারী পরিচালক (হাসপাতাল-১) ডা. শফিউর রহমান এবং গবেষণা কর্মকর্তা ডা. দিদারুল ইসলাম।

দুদকের ঢাকা সমন্বিত জেলা কার্যালয়-১ এ ফরিদ আহমেদ পাটোয়ারী ২০২০ সালের ২৩ সেপ্টেম্বর এই মামলাটি করেন। মামলা সূত্রে জানা গেছে, আসামিরা ক্ষমতার অপব্যবহার করে লাইসেন্স নবায়ন না করা রিজেন্ট হাসপাতালকে কোভিড হাসপাতালে রূপান্তর করে। সমঝোতা স্মারকের মাধ্যমে সরকারি প্রতিষ্ঠান নিপসমের ল্যাবে তিন হাজার ৯৩৯ কোভিড রোগীর নমুনা বিনামূল্যে পরীক্ষার ব্যবস্থা করেন। ওই হাসপাতালে নমুনা পরীক্ষার জন্য সাড়ে তিন হাজার টাকা করে মোট এক কোটি ৩৭ লাখ ৮৬ হাজার ৫০০ টাকা নেওয়া হয়।

এ ছাড়া রিজেন্ট হাসপাতালের মিরপুর ও উত্তরা শাখার চিকিৎসক, নার্স, ওয়ার্ডবয় ও অন্য কর্মকর্তাদের মাসিক খাবার খরচ হিসেবে এক কোটি ৯৬ লাখ ২০ হাজার টাকার চাহিদাসহ খসড়া স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ে পাঠানোর উদ্যোগ নেওয়ার অভিযোগও আনা হয় আসামিদের বিরুদ্ধে।

Please Share This Post in Your Social Media

Powered by : Oline IT