দীঘিনালায় ছাত্রলীগের দু'গ্রুপের সংঘর্ষ; সাংবাদিকসহ আহত ৩ - CTG Journal দীঘিনালায় ছাত্রলীগের দু'গ্রুপের সংঘর্ষ; সাংবাদিকসহ আহত ৩ - CTG Journal

শনিবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ১২:৪৫ অপরাহ্ন

        English
শিরোনাম :
বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে নিয়োগে নতুন সুপারিশ বিশ্বজুড়ে প্রতিদিন ৫ লাখ মানুষ ভুগছেন কোভিড সৃষ্ট অক্সিজেন সঙ্কটে গাঁজাক্ষেত ধ্বংস, আটক ৩ হোটেল থেকে সুবর্ণজয়ন্তীর উদ্বোধন করবে বিএনপি করোনা মোকাবিলায় বাংলাদেশের প্রশংসা করলেন গুতেরেজ ভাল্লুকের কামড়ে আহত দুইজন মুরং উপজাতিকে হেলিকপ্টারে নিয়ে এলো সেনাবাহিনী ৪৮ ঘণ্টা পর মুক্ত বাতাসে বাংলাদেশ দল ভ্যাকসিন গ্রহণের পরও সংক্রমিত হতে পারেন যে কারণে করোনাভাইরাস: দেশে ১১ মৃত্যুর দিনে শনাক্ত ৪৭০ মুশতাক আহমেদের ময়নাতদন্ত সম্পন্ন, অপমৃত্যুর মামলা কওমি শিক্ষার্থীদের কর্মমুখী ও সাধারণ শিক্ষার সুযোগ দেবে সরকার করোনার প্রভাব সুদূরপ্রসারী, পুরোপুরি সারে না ক্ষতিগ্রস্ত অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ
দীঘিনালায় ছাত্রলীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষ; সাংবাদিকসহ আহত ৩

দীঘিনালায় ছাত্রলীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষ; সাংবাদিকসহ আহত ৩

মো. আল আমিন, দীঘিনালা (খাগড়াছড়ি) : খাগড়াছড়ির দীঘিনালায় ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এসময় স্থানীয় সাংবাদিকসহ আহত হয়েছেন অন্তত তিনজন।

বুধবার দুপুরে দিকে দীঘিনালা উপজেলা আওয়ামীলীগ অফিস সংলগ্ন বঙ্গবন্ধু স্কয়ারে ছাত্রলীগের দু’গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ বাঁধে। এতে স্থানীয় সাংবাদিকসহ ছাত্রলীগের তিন জন আহত হন। আহতরা হলেন ছাত্রলীগ কর্মী ইমন শিকদার (২২),  আরোফিন রাহাত মানিক (২১)। এসময় সংঘর্ষের খবর সংগ্রহে গেলে দেশ রুপান্তর সাংবাদিক নুর হোসেন (৩২) আহত হয়েছেন।

আহতদের দীঘিনালা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। পরে খাগড়াছড়ি সদর হাসপাতালে প্রেরণ কর হয়।

জানতে চাইলে, বর্তমান কমিটির সভাপতি মেহেদী আলম অভিযোগ করে বলেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের উস্কানিতে পরিকল্পতি ভাবে আমাদের ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীদের উপর হামলা করে। এতে ৩ জন আহত হয়।

অপরপক্ষে থাকা কমিটির সহ-সভাপতি অপু চৌধুরী বলেন, দীঘিনালা উপজেলা ছাত্রলীগের কমিটির সভাপতি মেহেদী আলম এর নেতৃত্বে তার দলবল নিয়ে আমাদের নেতাকর্মীদের উপর হামলা করার পরিকল্পনা করেন, আমরা প্রতিহত করতে গেলে আমাদের চার-পাঁচ জন নেতাকর্মী আহত হন।

এ বিষয়ে, দীঘিনালা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ সফিক জানান, উপজেলা ছাত্রলীগের দু-পক্ষের সংঘর্ষ বাঁধলে আমরা বাঁধা দিই পরবর্তীতে আহত অবস্থায় ৩ জন পরে থাকতে দেখে সাথে সাথেই দীঘিনালা সদর হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য পাঠিয়েছি।

উল্লেখ যে, গত ১৪ নভেম্বর দীঘিনালা উপজেলা ছাত্রলীগ এবং দীঘিনালা সরকারী ডিগ্রী কলেজ কমিটি ঘোষণার পর থেকেই কমিটি বাতিলের দাবীতে গাড়ি ভাংচুরসহ বিভিন্ন কর্মসূচী পালন করেন পদ বঞ্চিত’রা।

৪ জানুয়ারি ছাত্রলীগের ৭৩তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন করতে উদ্যোগ নিলে অপর পক্ষ আলাদা প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন করার প্রস্তুতি নেয়। পরে সকাল সাড়ে দশটায় দু-পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা সৃষ্টি হলে, পুলিশ দুপক্ষকে শান্ত করে। বড় ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করে, দীঘিনালা থানা পুলিশ।

দীঘিনালা থানার অফিসার ইনচার্জ উত্তম চন্দ্র দেব ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, ছাত্রলীগের দু-পক্ষের মাঝে সংঘর্ষ বাঁধে আহত ৩ জন তবে কোন পক্ষেই পুলিশ কে অভিযোগ করে নি। গত ৪ জানুয়ারি ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন করার ঘটনায় দুপক্ষের মধ্যে উত্তেজনা সৃষ্টি হলে অপ্রীতিকর পরিস্থিতি এড়াতে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছিলো। বর্তমান পুলিশ মোতায়েন করা আছে পরিস্থিতি এখন শান্ত রয়েছে।

Please Share This Post in Your Social Media

Powered by : Oline IT