ডুবে যাওয়া লঞ্চ থেকে এক নারীর লাশসহ ১১ জনকে উদ্ধার - CTG Journal ডুবে যাওয়া লঞ্চ থেকে এক নারীর লাশসহ ১১ জনকে উদ্ধার - CTG Journal

সোমবার, ১৯ এপ্রিল ২০২১, ০৮:৫২ অপরাহ্ন

        English
শিরোনাম :
নতুন বছরে নতুন তরকারী হিসাবে পাহাড়ে কাঠাল খুবই প্রিয় সব্জি লিখিত পরীক্ষার ফলাফল নিয়ে যা জানালো বার কাউন্সিল ঈদের আগে লকডাউন শিথিল হবে মানিকছড়ি ভিজিডি’র খাদ্যশস্য সরবরাহে বিধিভঙ্গ করায় খাদ্য নিয়ন্ত্রক ও ওসিএলএসডি’কে শোকজ লকডাউনে মানিকছড়িতে কঠোর অবস্থানে প্রশাসন, জরিমানা অব্যাহত চট্টগ্রামে দোকানপাট-শপিংমল খুলে দেওয়ার দাবি ব্যবসায়ীদের না.গঞ্জ মহানগর জামায়াতের আমিরসহ গ্রেফতার ৩ লকডাউন বাড়ানো হলো যে কারণে একদিনে প্রাণ গেল ১১২ জনের আগ্রাবাদ বিদ্যুৎ ভবনে ৬ চাঁদাবাজ আটক নাইক্ষ্যংছড়িতে রাষ্ট্রবিরোধী প্রচারনার অভিযোগে দুই যুবক আটক বান্দরবানে মারমা লিবারেশন পার্টির ২ সদস্য আটক, অস্ত্র ও কাতুর্জ উদ্ধার
ডুবে যাওয়া লঞ্চ থেকে এক নারীর লাশসহ ১১ জনকে উদ্ধার

ডুবে যাওয়া লঞ্চ থেকে এক নারীর লাশসহ ১১ জনকে উদ্ধার

নারায়ণগঞ্জের শীতলক্ষ্যা নদীতে ডুবে যাওয়া এমভি রাবিতা আল হাসান নামের লঞ্চ থেকে এক নারীর লাশ উদ্ধার হয়েছে। তবে তার পরিচয় পাওয়া যায়নি। লাশটি নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে (ভিক্টোরিয়া হাসপাতাল) পাঠানো হয়েছে। লঞ্চটিতে থাকা মো. আলম নামের এক শ্রমিক সাঁতার কেটে তীরে ওঠেন। তার ভাষ্য অনুযায়ী, আরও ১০-১২ জন লঞ্চটি থেকে নদীতে ঝাঁপ দিয়ে সাঁতার কেটে তীরে উঠেছেন। স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠিয়েছে। তবে বাকিদের বিষয়ে তিনি কিছু বলতে পারেননি। লঞ্চটি আনুমানিক ৪০ থেকে ৫০ জন যাত্রী ছিলেন বলে দাবি তার।

এদিকে, ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স ও বিআইডব্লিউটিএ’র ডুবুরিসহ কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে গেলেও ঝড়-বৃষ্টির কারণে নদী প্রচণ্ড অশান্ত থাকায় উদ্ধার তৎপরতা চালাতে পারছে না বলে নৌ-থানা পুলিশ জানিয়েছে। তবে তিন জন ডুবুরিকে নামানো হয়েছে। রাত ৯টার দিকের খবর অনুযায়ী, পানিতে প্রচণ্ড স্রোত ও ঢেউ থাকায় উদ্ধার কাজে দেরি হচ্ছে।

নারায়ণগঞ্জ লঞ্চ টার্মিনাল থেকে মুন্সীগঞ্জের উদ্দেশ্যে যাত্রা করে শীতলক্ষ্যা নদীর চর সৈয়দপুর কয়লাঘাট এলাকায় একটি কার্গোর ধাক্কায় যাত্রীবাহী লঞ্চ ডুবে যায়। রবিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নারায়ণগঞ্জ নৌ-থানা পুলিশের ওসি মো. শহিদুল আলম জানান, শীতলক্ষ্যা নদীর চর সৈয়দপুর কয়লাঘাট এলাকায় অর্ধশত যাত্রী নিয়ে এমভি রাবিতা আল হাসান নামে একটি যাত্রীবাহী লঞ্চ ডুবে গেছে। লঞ্চটি নারায়ণগঞ্জ থেকে যাত্রী নিয়ে মুন্সীগঞ্জে যাচ্ছিল। ডুবে যাওয়া লঞ্চে ৩৫-৪০ জন যাত্রী ছিল। ঝড়-বৃষ্টির কারণে ফায়ার সার্ভিস ও বিআইডব্লিউটি’র দল উদ্ধার তৎপরতা চালাতে পারছে না। কত নিখোঁজ রয়েছে তা জানা যায়নি।

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-চলাচল যাত্রী পরিবহন সংস্থার সিনিয়র সহ-সভাপতি মো. বদিউজ্জামান বাদল বলেন, ৪০-৫০ জন যাত্রী নিয়ে লঞ্চটি নারায়ণগঞ্জ থেকে মুন্সীগঞ্জ যাচ্ছিল। লঞ্চটি এসকে-৩ নামে বড় আকৃতির একটি কার্গো জাহাজের ধাক্কায় ডুবে যায়। শুনেছি লঞ্চটি ডুবে যাওয়ার পর অনেক যাত্রী সাঁতরিয়ে তীরে উঠেছে। নৌকা যোগেও কিছু যাত্রী উদ্ধার করা হয়েছে। তবে কত যাত্রী নিখোঁজ রয়েছে তা এখনও জানা যায়নি।

Please Share This Post in Your Social Media

Powered by : Oline IT