সোমবার, ০৩ অক্টোবর ২০২২, ০২:০৫ অপরাহ্ন

        English
শিরোনাম :
রোহিঙ্গা ও আটকে পড়া পাকিস্তানিরা বাংলাদেশের বোঝা: প্রধানমন্ত্রী নির্বাচনিসহ মাধ্যমিকের বার্ষিক পরীক্ষার সূচি প্রকাশ দুই ডোজ টিকা নিয়েছেন ১ কোটি ৮২ লাখ মানুষ পরমাণু শক্তি আমরা শান্তির জন্য ব্যবহার করবো: প্রধানমন্ত্রী দক্ষিণ এশিয়ায় করোনার ধাক্কা সামলানোর শীর্ষে বাংলাদেশ স্কুল শিক্ষার্থীদের শিগগিরই টিকা দেওয়া হবে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী শারদীয়া দুর্গাপুজা উপলক্ষে কাপ্তাইয়ে মন্দিরে আর্থিক সহায়তা প্রদান করলেন সেনা জোন রামগড়ে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় মেয়র নির্বাচিত হওয়ার পথে কামাল ‘করোনা পরবর্তী পরিবেশ ও জলবায়ু সহনশীল পুনরুদ্ধার পরিকল্পনা জরুরি’ ৬ ছাত্রের চুল কেটে দেওয়া শিক্ষক কারাগারে জাতীয় পার্টির নতুন মহাসচিব মুজিবুল হক চুন্নু দ্বিতীয় ধাপের ইউপি নির্বাচন ১১ নভেম্বর
চট্টগ্রামে জাইকার অফিস হবে চেম্বারের ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টারে

চট্টগ্রামে জাইকার অফিস হবে চেম্বারের ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টারে

সিটিজি জার্নাল নিউজঃ বাংলাদেশ জাপানি বিনিয়োগকারীদের পছন্দের তালিকায় রয়েছে বলে জানিয়েছেন জাপান দূতাবাসের ফার্স্ট সেক্রেটারি তাকাশি শিমোকিওদা। তবে তিনি বিনিয়োগ নিশ্চিত করতে জাপানি কম্পানিগুলোর জন্য বাংলাদেশে আরও নিরাপত্তা নিশ্চিত করার আহ্বান জানান।

গতকাল শনিবার সকালে ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টারের বঙ্গবন্ধু কনফারেন্স হলে জাপান-বাংলাদেশ চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি ও চট্টগ্রাম চেম্বারের মতবিনিময় সভায় তিনি এ কথা বলেন। এ সময় তিনি চট্টগ্রামে জাপানি বিনিয়োগকারীর কাজের সুবিধার্থে ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টারে জাইকার অফিস স্থাপন করা হবে বলে জানান।

সভায় জাপান নিঃশর্তভাবে বাংলাদেশকে সহযোগিতা করে আসছে উল্লেখ করে চট্টগ্রাম চেম্বার সভাপতি মাহবুবুল আলম বলেন, ‘সোনাদিয়া সমুদ্রবন্দর ও বে-টার্মিনাল নির্মাণে জাপানের সহযোগিতা চাই।’ তিনি চট্টগ্রাম বন্দরসহ ভৌগোলিক অবস্থানগত সুবিধা কাজে লাগিয়ে চট্টগ্রাম অঞ্চলে জাপানি বিনিয়োগ বৃদ্ধির ওপর গুরুত্ব দেন এবং জাপানি বিনিয়োগকারীদের জন্য একটি বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চল গড়ে তোলার আহ্বান জানান।

জাপান-বাংলাদেশ চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি সালাহ্উদ্দীন কাসেম খান বলেন, ‘বাংলাদেশের জিডিপিতে চট্টগ্রামের অবদান প্রায় ১২ শতাংশ। সে অনুপাতে বাণিজ্যিক রাজধানীর সুযোগ-সুবিধা আরও বৃদ্ধি করতে হবে।’ তিনি স্ট্র্যাটেজিক পার্টনারশিপ সৃষ্টিতে জাইকা, জেটরো, চিটাগাং চেম্বার, জেবিসিসিআই এবং দূতাবাসের সমন্বয়ে একটি ডায়ালগ আয়োজনের অনুরোধ জানান। তিনি সরকারের নীতিমালার সাথে সঙ্গতি রেখে চট্টগ্রাম থেকে মিরসরাই পর্যন্ত শিল্প এলাকার সুবিধার সর্বোচ্চ ব্যবহার নিশ্চিত করার ওপর গুরুত্বারোপ করেন।

সভায় আরো বক্তব্য দেন চেম্বার সিনিয়র সহ-সভাপতি মো. নুরুন নেওয়াজ সেলিম, সহ-সভাপতি সৈয়দ জামাল আহমেদ, পরিচালক অঞ্জন শেখর দাশ ও সাবেক পরিচালক মাহফুজুল হক শাহ, জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের সাবেক চেয়ারম্যান ড. মুহাম্মদ আবদুল মজিদ, জেবিসিসিআইর অ্যাডভাইজর আখতারুজ্জামান ও মহাসচিব তারেক রাফি ভূঁইয়া। এছাড়া অন্যান্যের মধ্যে চেম্বার পরিচালক কামাল মোস্তফা চৌধুরী, মাহবুবুল হক চৌধুরী (বাবর), মো. আবদুল মান্নান সোহেল, সান্তাক্রুজের স্বত্বাধিকারী গোলাম গাফফার, মাল্টি ফ্রেইট লিমিটেডের সৈয়দ গোলাম মাওলা, টোরে ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশের কান্ট্রি ম্যানেজার মাহমুদর রহমান মামুন, মায়েকাওয়া ম্যানুফেকচারিং কম্পানি লিমিটেডের কান্ট্রি ম্যানেজার এস এম তারিক, হাইসন ইন্টারন্যাশনালের বাংলাদেশ অপারেশন ম্যানেজার নিয়াজ মাহমুদ হাই, নভো কার্গো সার্ভিসেসের ডাইরেক্টর সিরাজুল হক আনসারী ও ছুপা বাংলাদেশের কান্ট্রি ম্যানেজার হাসান উপস্থিত ছিলেন।

একে/এম

Please Share This Post in Your Social Media

Powered by : Oline IT