বুধবার, ০৬ Jul ২০২২, ০৬:২৯ পূর্বাহ্ন

        English
শিরোনাম :
রোহিঙ্গা ও আটকে পড়া পাকিস্তানিরা বাংলাদেশের বোঝা: প্রধানমন্ত্রী নির্বাচনিসহ মাধ্যমিকের বার্ষিক পরীক্ষার সূচি প্রকাশ দুই ডোজ টিকা নিয়েছেন ১ কোটি ৮২ লাখ মানুষ পরমাণু শক্তি আমরা শান্তির জন্য ব্যবহার করবো: প্রধানমন্ত্রী দক্ষিণ এশিয়ায় করোনার ধাক্কা সামলানোর শীর্ষে বাংলাদেশ স্কুল শিক্ষার্থীদের শিগগিরই টিকা দেওয়া হবে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী শারদীয়া দুর্গাপুজা উপলক্ষে কাপ্তাইয়ে মন্দিরে আর্থিক সহায়তা প্রদান করলেন সেনা জোন রামগড়ে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় মেয়র নির্বাচিত হওয়ার পথে কামাল ‘করোনা পরবর্তী পরিবেশ ও জলবায়ু সহনশীল পুনরুদ্ধার পরিকল্পনা জরুরি’ ৬ ছাত্রের চুল কেটে দেওয়া শিক্ষক কারাগারে জাতীয় পার্টির নতুন মহাসচিব মুজিবুল হক চুন্নু দ্বিতীয় ধাপের ইউপি নির্বাচন ১১ নভেম্বর
চকরিয়াতে বুদ্ধিজীবী দিবস পালিত

চকরিয়াতে বুদ্ধিজীবী দিবস পালিত

নিজস্ব প্রতিনিধি, চকরিয়াঃ স্বাধীনতার ৪৭ বছর পরও দেখতে হয়, বুদ্ধিজীবীদের যারা হত্যা করেছে তারা অনেকেই স্বাধীন বাংলাদেশের সমাজে ও রাজনীতিতে পুনর্বাসিত হয়েছে। যারা এ দেশের নিরপরাধ মানুষদের নৃশংসভাবে হত্যা করে নগ্ন উল্লাস করেছিল সেই সব পাকিস্তানি প্রেতাত্মারা আজও স্বাধীন বাংলাদেশের মাটিতে সক্রিয়। এটা আমাদের জন্য সবচেয়ে বড় লজ্জার।

১৪ ডিসেম্বর (বৃহস্পতিবার) সকাল ১১টায় উপজেলা পরিষদ মিলনায়তন হলরুম “মোহনায়” উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নুরুদ্দীন মুহাম্মদ শিবলী নোমানের সভাপতিত্বে বুদ্ধিজীবী দিবসের ওই আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে চকরিয়া উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব জাফর আলম এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, এ দেশকে মেধাশূণ্য করতে ৭১ সালের ১৪ ডিসেম্বর বুদ্ধিজীবীদের হত্যা করা হয়। ১৯৭১ এর ডিসেম্বর মাসে স্বাধীনতা যুদ্ধের শেষ পর্যায়ে এসে পাকিস্তান বাহিনী যখন বুঝতে শুরু করে যে তাদের পক্ষে যুদ্ধে জেতা সম্ভব নয়, তখন তারা দেশকে সাংস্কৃতিক, সামাজিক ও শিক্ষাগত দিক থেকে দুর্বল এবং পঙ্গু করে দেয়ার পরিকল্পনা অংশ হিসেবে বুদ্ধিজীবীদের হত্যা করা হয়। দেশকে মেধাশূণ্য করতেই পরিকল্পিতভাবে বুদ্ধিজীবীদের এ হত্যা করা হয়েছিল।

এতে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন চকরিয়া পৌরসভার মেয়র মো. আলমগীর চৌধুরী, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও ফাঁসিয়াখালী ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব গিয়াস উদ্দিন চৌধুরী, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান সিরাজুল ইসলাম আজাদ, চকরিয়া থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা প্রতিনিধি হিসেবে উপ-পরিদর্শক (এস আই) তানবির আহমেদ, জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক ত্রাণ বিষয়ক সম্পাদক আলহাজ্ব নুরুল আবচার, জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য আমিনুর রশিদ দুলাল, চকরিয়া উপজেলা সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার ফরিদুল আলম, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ মো. আতিক উল্লাহ, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ছরওয়ার আলম, ছৈয়দ আলম কমিশনার, সাংগঠনিক সম্পাদক মিজবাহউল হক প্রমুখ।

বুদ্ধিজীবী দিবসের আলোচনা সভায় মাতামুহুরী সাংগঠনিক থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও পশ্চিম বড় ভেওলা ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব সিরাজুল ইসলাম বাবলা, চিরিংগা ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব জসিম উদ্দিন, কোনাখালী ইউপি চেয়ারম্যান দিদারুল হক সিকদার, কাকারা ইউপি চেয়ারম্যান শওকত ওসমানসহ ১৮ইউপি চেয়ারম্যানবৃন্দ সরকারি-বেসরকারি অফিসের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ, সাংবাদিক ও চকরিয়া সিটি কলেজের ছাত্র-ছাত্রীরা উপস্থিত ছিলেন।

Please Share This Post in Your Social Media

Powered by : Oline IT