শুক্রবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৭:৩৬ অপরাহ্ন

        English
শিরোনাম :
রোহিঙ্গা ও আটকে পড়া পাকিস্তানিরা বাংলাদেশের বোঝা: প্রধানমন্ত্রী নির্বাচনিসহ মাধ্যমিকের বার্ষিক পরীক্ষার সূচি প্রকাশ দুই ডোজ টিকা নিয়েছেন ১ কোটি ৮২ লাখ মানুষ পরমাণু শক্তি আমরা শান্তির জন্য ব্যবহার করবো: প্রধানমন্ত্রী দক্ষিণ এশিয়ায় করোনার ধাক্কা সামলানোর শীর্ষে বাংলাদেশ স্কুল শিক্ষার্থীদের শিগগিরই টিকা দেওয়া হবে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী শারদীয়া দুর্গাপুজা উপলক্ষে কাপ্তাইয়ে মন্দিরে আর্থিক সহায়তা প্রদান করলেন সেনা জোন রামগড়ে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় মেয়র নির্বাচিত হওয়ার পথে কামাল ‘করোনা পরবর্তী পরিবেশ ও জলবায়ু সহনশীল পুনরুদ্ধার পরিকল্পনা জরুরি’ ৬ ছাত্রের চুল কেটে দেওয়া শিক্ষক কারাগারে জাতীয় পার্টির নতুন মহাসচিব মুজিবুল হক চুন্নু দ্বিতীয় ধাপের ইউপি নির্বাচন ১১ নভেম্বর
এবার আমরণ অনশনে ইবতেদায়ি মাদ্রাসা শিক্ষকরা

এবার আমরণ অনশনে ইবতেদায়ি মাদ্রাসা শিক্ষকরা

সিটিজি জার্নাল নিউজঃ চাকরি জাতীয়করণের দাবিতে ৯ দিনের অবস্থান ধর্মঘটের পরও সরকারের পক্ষ থেকে কোনও আশ্বাস না পাওয়ায় আমরণ অনশন শুরু করেছেন ইবতেদায়ি মাদ্রাসা শিক্ষকরা। মঙ্গলবার ( ৯ জানুয়ারি) দুপুর ১২টা পর্যন্ত আশ্বাসের অপেক্ষা করে নিরুপায় হয়ে তারা আমরণ অনশনে গিয়েছেন বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ স্বতন্ত্র ইবতেদায়ি মাদ্রাসা শিক্ষক সমিতি। তাদের একমাত্র দাবি, ইবতেদায়ি মাদ্রাসা শিক্ষকদের চাকরি জাতীয়করণ।

এর আগে, গত বছরের ২৩ ডিসেম্বর থেকে রাজধানীতে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে বেতন-ভাতায় বৈষম্য নিরসনের দাবিতে আমরণ অনশন করে বাংলাদেশ প্রাথমিক সহকারী শিক্ষক মহাজোট। প্রাথমিক ও গণশিক্ষামন্ত্রীর আশ্বাসে ২৫ ডিসেম্বর তারা অনশন কর্মসূচি শেষ করেন। পরে এমপিওভুক্তির দাবিতে সদ্যবিদায়ী বছরের ৩১ ডিসেম্বর থেকে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে আমরণ অনশন শুরু করেন নন-এমপিও শিক্ষকরা। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আশ্বাসে ৫ জানুয়ারি অনশন ভাঙেন তারা

জানা গেছে, ১৯৯৪ সাল থেকে একই পরিপত্রে নিবন্ধিত বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও স্বতন্ত্র ইবতেদায়ি মাদ্রাসার শিক্ষকদের বেতন ৫০০ টাকা করা হয়। পরে ধাপে ধাপে বেতন বাড়তে থাকে তাদের। ২০১৩ সালে ৯ জানুয়ারি মহাজোট সরকার ২৬ হাজার ১৯৩টি বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় জাতীয়করণ করে।

আন্দোলনরত শিক্ষকরা বলছেন, ইবতেদায়ি মাদ্রাসার সব কার্যক্রম প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মতো হলেও প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকরা বেতন-ভাতা পেলেও ইবতেদায়ি মাদ্রাসার শিক্ষকরা তেমন কিছুই পান না। এই দুর্মূল্যের বাজারে ইবতেদায়ি মাদ্রাসার শিক্ষকরা অমানবিকতার শিকার বলে দাবি করেন তারা।

এরই পরিপ্রেক্ষিতে দীর্ঘদিন ধরে ইবতেদায়ি মাদ্রাসা শিক্ষকরা জাতীয়করণের দাবি জানিয়ে আসছেন। এই দাবিতে গত ১০ নভেম্বর প্রেসক্লাবে মানববন্ধন করে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি দেন তারা। এসময় ৩১ ডিসেম্বরের মধ্যে জাতীয়করণের আল্টিমেটাম দিয়ে কর্মসূচি স্থগিত করা হয়।

ওই আল্টিমেটামে কাজ না হলে ১ জানুয়ারি থেকে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে অবস্থান ধর্মঘট পালন করে আসছেন শিক্ষকরা। এর মধ্যে গতকাল সোমবার (৮ জানুয়ারি) তারা জানান, এদিনের মধ্যে দাবি আদায় না হলে আজ মঙ্গলবার দুপুর ১২টা থেকে আমরণ অনশন শুরু করবেন তারা। সেই ঘোষণা অনুযায়ী এবার আমরণ অনশন শুরু করলেন ইবতেদায়ি মাদ্রাসার শিক্ষকরা।

একে/এম

Please Share This Post in Your Social Media

Powered by : Oline IT