আসামি ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা, গুলিতে নিহত যুবক - CTG Journal আসামি ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা, গুলিতে নিহত যুবক - CTG Journal

বুধবার, ০৩ মার্চ ২০২১, ০১:২৩ পূর্বাহ্ন

        English
শিরোনাম :
কারাবন্দি মুশতাকের মৃত্যু: তদন্ত কমিটির সময় বাড়লো টেলিটকসহ ৪ অপারেটরই তরঙ্গ নিলামে অংশ নিচ্ছে নিউজিল্যান্ডে এবার নিজেদের সেরা ক্রিকেট খেলবে বাংলাদেশ! নারীকে পিস্তল ঠেকিয়ে ছিনতাই: সেই তিন পুলিশ সদস্য ২ দিনের রিমান্ডে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন সংশোধনের দাবিতে সাংবাদিকদের মানববন্ধন বিএনপি এখন মুসলিম লীগ, সত্যি? বিদেশি চকলেটের প্যাকেটে ইয়াবা পাচার দুদকের তদন্ত কর্মকর্তার অনৈতিক দাবির বিরুদ্ধে হাইকোর্টে আসামিরা চসিকের বই মেলা ২৩ মার্চ থেকে আরও টিকা কেনা হবে, টাকা প্রস্তুত রাখতে বললেন প্রধানমন্ত্রী ‘রাজপথে আন্দোলনের মাধ্যমেই আওয়ামী সরকারকে উৎখাত করতে হবে’ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ৭ মার্চ পালনের নির্দেশ, পতাকা উত্তোলন বাধ্যতামূলক
আসামি ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা, গুলিতে নিহত যুবক

আসামি ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা, গুলিতে নিহত যুবক

কক্সবাজারের টেকনাফে মাদক মামলার আটক আসামিকে ছিনিয়ে নেওয়ার ঘটনাকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের গোলাগুলিতে খোরশেদ আলম (২২) নামে এক যুবক নিহত হয়েছে বলে দাবি করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় পুলিশের ৩ সদস্য আহত হয়েছে। তবে নিহত পরিবারের দাবি, পুলিশের গুলিতে নিহত হন খোরশেদ।

পুলিশ বলছে, এই ঘটনায় শামশুল আলম ওরফে কালা শামসু নামে এক ব্যক্তিকে আটক করা হয়। তার বিরুদ্ধে মাদকসহ একাধিক মামলার রয়েছে।

মঙ্গলবার (৫ জানুয়ারি) রাত সাড়ে ১০ টার দিকে টেকনাফ সদর ইউনিয়নের মিঠাপানির ছড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। আহত পুলিশ সদস্যরা হলেন, এএসআই রতন(৩১), কনেস্টবল শরিফুল (৪৬), বলরাম (২৫)।

এ বিষয়ে টেকনাফ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হাফিজুর রহমান জানান, মঙ্গলবার রাতে মাদক মামলাসহ একাধিক মামলার পলাতক আসামি শামসুল আলমকে আটক করে পুলিশ। তাকে থানায় নিয়ে আসার পথে হাবিরছাড়া এলকায় পৌঁছলে তার লোকজন অস্ত্রসস্ত্র নিয়ে ব্যারিকেড দিয়ে শামসুকে ছিনিয়ে নিতে পুলিশের ওপর হামলা চালায়। পুলিশও আত্মরক্ষায় পাল্টা গুলি ছোড়ে। এসময় গোলাগুলিতে আহত হন ওই তিন পুলিশ সদস্য।

তিনি জানান, দুই পক্ষের গোলাগুলির ঘটনায় খোরশেদ আলম গুলিবিদ্ধ হয়ে মারা যান। তবে সে কার গুলিতে মারা গেছে সেটি নিশ্চিত হওয়া যায়নি। আটক শামসুল আলম একজন র্শীষ মাদক ব্যবসায়ী। তাদের দু’ভাইয়ের বিরুদ্ধে একাধিক মামলা রয়েছে।

টেকনাফ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক জাকারিয়া মাহমুদ বলেন, গুলিবিদ্ধ এক যুবককে হাসপাতালে নিয়ে আসে। তার বুকে বা পাশের গুলি আঘাত রয়েছে। তবে হাসপাতালে নিয়ে আসার আগে তার মৃত্যু হয়। আহত তিন পুলিশ সদস্যদের প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে কক্সবাজারে পাঠানো হয়েছে।   

ওসি হাফিজুর রহমান জানান, লাশময়না তদন্তের জন্য কক্সবাজার মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ বিষয়ে মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

নিহত পরিবারের দাবি, শামসুল আলম পুলিশের হাতে আটকের খবর শুনে ব্যাডমিন্টিন খেলা শেষে ঘটনাস্থলে ভাইকে দেখতে ছুটে যান খোরশেদ আলম। এসময় পুলিশের ছোড়া গুলিতে গুলিবিদ্ধ হয় সে। পরে তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে গেলে ডাক্তার মৃত ঘোষণা করে।

Please Share This Post in Your Social Media

Powered by : Oline IT