আরও ৮৮ মৃত্যু, শনাক্ত ২৩৪১ - CTG Journal আরও ৮৮ মৃত্যু, শনাক্ত ২৩৪১ - CTG Journal

বুধবার, ১২ মে ২০২১, ১১:২৮ অপরাহ্ন

        English
আরও ৮৮ মৃত্যু, শনাক্ত ২৩৪১

আরও ৮৮ মৃত্যু, শনাক্ত ২৩৪১

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনায় আক্রান্ত হয়ে আরও ৮৮ জন মারা গেছেন। তাদের নিয়ে সরকারি হিসাবে এখন পর্যন্ত করোনায় মারা গেলেন ১১ হাজার ৩৯৩ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন দুই হাজার ৩৪১ জন। এ নিয়ে এখন পর্যন্ত শনাক্ত হলেন সাত লাখ ৫৬ হাজার ৯৫৫ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন চার হাজার ৭৮২ জন, এখন পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ছয় লাখ ৭৭ হাজার ১০১ জন।

বৃহস্পতিবার (২৯ এপ্রিল) করোনা বিষয়ক নিয়মিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে স্বাস্থ্য অধিদফতর এসব তথ্য জানায়।

এতে বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় রোগী শনাক্তের হার ৯ দশমিক ৩৯ শতাংশ। আর এখন পর্যন্ত শনাক্তের হার ১৩ দশমিক ৮৯ শতাংশ। গত ২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৮৯ দশমিক ৪৫ শতাংশ এবং  মৃত্যুর হার এক দশমিক ৫১ শতাংশ।

গত ২৪ ঘণ্টায় করোনার নমুনা সংগৃহীত হয়েছে ২৪ হাজার ৭২৩টি। নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ২৪ হাজার ৯২৮টি। দেশে এখন পর্যন্ত করোনার নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ৫৪ লাখ ৪৮ হাজার ৬৫৮টি। এরমধ্যে সরকারি ব্যবস্থাপনায় পরীক্ষা করা হয়েছে ৪০ লাখ ২৪ হাজার ৮৭৭ টি এবং বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ১৪ লাখ ২৩ হাজার ৭৮১টি।

দেশে বর্তমানে ৩৫৮টি পরীক্ষাগারে করোনার নমুনা পরীক্ষা করা হচ্ছে জানিয়ে স্বাস্থ্য অধিদফতর জানায়, এরমধ্যে আরটি-পিসিআরের মাধ্যমে পরীক্ষা করা হচ্ছে ১২৩টি পরীক্ষাগারে, জিন এক্সপার্ট মেশিনের মাধ্যমে পরীক্ষা করা হচ্ছে ৩৪টি পরীক্ষাগারে এবং র‌্যাপিড অ্যান্টিজেনের মাধ্যমে পরীক্ষা করা হচ্ছে ২০১টি পরীক্ষগারে।

মারা যাওয়া ৮৮ জনের মধ্যে পুরুষ ৫২ জন, আর নারী ৩৬ জন। এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়ে পুরুষ মারা গেলেন আট হাজার ৩২১ জন এবং নারী তিন হাজার ৭২ জন।

২৪ ঘণ্টায় মৃত্যুবরণকারীদের মধ্যে বয়স বিবেচনায় ষাটোর্ধ্ব রয়েছেন ৫৫ জন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে আছেন ১২ জন, ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে ১৫ জন, ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে তিন জন, ২১ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে দুই জন এবং ১১ থেকে ২০ বছরের মধ্যে আছেন একজন।

তাদের মধ্যে ঢাকা বিভাগের আছেন ৪৮ জন, চট্টগ্রাম বিভাগের ২২ জন, রাজশাহী ও বরিশাল বিভাগের চার জন করে, খুলনা বিভাগের একজন, সিলেট বিভাগের পাঁচ জন এবং রংপুর ও ময়মনসিংহ বিভাগের আছেন দুই জন করে।

৮৮ জনের মধ্যে সরকারি হাসপাতালে মারা গেছেন ৫২ জন, বেসরকারি হাসপাতালে ৩৩ জন এবং বাসায় তিন জন মারা গেছেন।

সুস্থ হওয়া চার হাজার ৭৮২ জনের মধ্যে ঢাকা বিভাগের আছেন দুই হাজার ৮৪ জন, চট্টগ্রাম বিভাগের ৯৩৬ জন, রংপুর বিভাগের ৩১৯ জন, খুলনা বিভাগের ৩৮৪ জন, বরিশাল বিভাগের ৪১৩ জন, রাজশাহী বিভাগের ২৬৩ জন, সিলেট বিভাগের ৩৪৯ জন এবং ময়মনসিংহ বিভাগের আছেন ৩৪ জন।

Please Share This Post in Your Social Media

Powered by : Oline IT